ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের নিয়ে নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে অ্যাওয়ার্ড শো

বাংলাদেশের ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের জন্য গড়ে উঠেছে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইডেব)। আইডেব ২০১৯ থেকে তাদের যাত্রা শুরু করেছে। আইডেব’র অনেক দিনের স্বপ্নকে সার্থক করতে ২০২৪ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত করতে যাচ্ছে “আইডেব এক্সিলেন্স ইন ইন্টেরিয়র ডিজাইন অ্যাওয়ার্ড ২০২৪”।

শনিবার (২৯ জুন) সকাল ১১ টায় বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে এ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনটি শুভেচ্ছা বক্তব্য দিয়ে শুরু করেন সংস্থাটির সদস্য সচিব সৈয়দ কামরুল আহসান।

সংগঠনের আহব্বায়ক শফিউল ইসলাম এই অনুষ্ঠানটির সম্পূর্ণ পরিকল্পনা সাংবাদিকদের, বিভিন্ন কর্পোরেট হাউস, সম্ভাব্য স্পন্সর ও ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ও প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের ব্যাখ্যা করেন বলেন এ অনুষ্ঠানে দেশের সমস্ত ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান নির্বিশেষে অংশ নিতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, “১৯৮০ সালের পর থেকে এলোমেলো ভাবে এই পেশা এগিয়েছে একটু একটু করে। বর্তমানে দেশে ২৫ লাখ মানুষ এই পেশার সাথে জড়িত। প্রতিবছর প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকার কাজ হচ্ছে এই সেক্টরে। বাংলাদেশের বহু ডিজাইনাররা আন্তর্জাতিক ডিজাইনারদের সাথে একই সৃজনশীলতার মানের কাজ করে যাচ্ছে, কিন্তু কাজের কোন স্বীকৃতি পাচ্ছে না। তাই এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমরা দেশের সেরা ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের দেশ ও জাতির সামনে তুলে আনতে চাই এবং তাদের স্বীকৃতি নিশ্চিতকরণে, ডিজাইনারদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও সমাজে সম্মানজনক অবস্থান তৈরি করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি”।

অনুষ্ঠানটি প্রতি বছর চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটি। বিস্তারিত জানার জন্য www.idabaward.com ওয়েবসাইটে ভিজিট করলে সমস্ত তথ্য পাওয়া যাবে। অংশ নেয়ার জন্য ৩১ শে আগস্ট পর্যন্ত সময় রয়েছে। এক্ষেত্রে ওয়েবসাইটে ফর্ম পূরণ করে জমা দিতে হবে।

প্রজেক্টে কোন রকম ওয়াটারমার্ক বা লোগো থাকা যাবে না। নকশার প্রভাব, সৃজনশীলতা থেকে শুরু করে দেশীয় ঐতিহ্যকে লালন, পরিবেশগত মূল্যবোধ এবং রং এর গুণগত ব্যবহারকে বিচার মানদন্ড হিসেবে রাখা হয়েছে। প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মোট পুরস্কারের মূল্য ১৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য, এখানে কোন ফি ছাড়াই যে কোন পেশাগত বাংলাদেশি ইন্টেরিয়র ডিজাইনার, আর্কিটেক্ট বা সরকারী লাইসেন্স ধারী প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহন করতে পারবেন।

অর্থসূচক/ এইচএআই

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.