অবশেষে সরিয়ে নেয়া হলো কোকাকোলার সেই বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি কোকাকোলার একটি বিজ্ঞাপন ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এতে রীতিমত তোলপাড় শুরু হয় ভিডিওটি নিয়ে। সমালোচনার মধ্যে দিয়ে ভিডিওটি সরিয়ে নেয়া হয় কোকাকোলার ইউটিউব চ্যানেল থেকে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে তাদের ইউটিউব চ্যানেলে সার্চ দিয়ে দেখা যায় বিজ্ঞাপনটি চ্যানেলে নেই।

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে সারাবিশ্বসহ বাংলাদেশও ইসরায়েলি ও মার্কিন পণ্য বয়কট করে চলেছে সাধারণ জনগণ। সম্প্রতি কোকাকোলা বাংলাদেশে একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে, যা নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়ে কোকাকোলা। আর জনগণের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

কোকাকোলা বয়কটের খবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোপের মুখে পড়েছেন কোমলপানীয় ব্র্যান্ড কোকাকোলা, পাশাপাশি যেসব মডেল এ বিজ্ঞাপনটিতে অভিনয় করেছেন। অনেকে কোকাকোলা বয়কটের পাশাপাশি অভিনয়শিল্পীদের বয়কটের হুমকি দিয়েছেন।

আলোচনা-সমালোচনা মাঝে কোকাকোলা তাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের ভিডিওটি সরিয়ে নিয়েছে।

তবে ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কোকাকোলা কর্তৃপক্ষ অফিশিয়ালি কোনো বক্তব্য দেয়নি। বিজ্ঞাপনটিতে মডেল হিসেবে ছিলেন অভিনেতা ও নির্মাতা শরাফ আহমেদ জীবন, শিমুল শর্মা, আব্দুল্লাহ আল সেন্টু প্রমুখ।

সাধারণ জনগণ অভিনয়শিল্পীদের বয়কটের হুমকি দেওয়ার পরে শরাফ আহমেদ জীবনও শিমুল শর্মা বিজ্ঞাপনে কাজ করার বিষয়ে মুখ খুলেছেন। শরাফ আহমেদ জীবন বলেন, আমি একজন নির্মাতা এবং অভিনেতা হিসেবে সবার কাছে পরিচিত।

তিনি আরও বলেন, বিগত দুই দশক ধরে আমি নির্মাণ ও অভিনয়ের সাথে জড়িত। ব্যক্তিগত জীবনে আমি সবসময় মানবাধিকার বিরোধী যেকোনো আগ্রাসনের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছি এবং আপনাদের অনুভূতি ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকেছি।

এনিয়ে শিমুল শর্মা বলেন, আমি মাত্র আমার জীবনের পথচলা শুরু করেছি, আমার এই পথচলায় ভুল ত্রুটি ক্ষমা সুলভ দৃষ্টিতে দেখবেন এবং আমাকে ভবিষ্যতে একজন বিবেকবান শিল্পী হয়ে ওঠার জন্য শুভ কামনায় রাখবেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

অর্থসূচক/এমএস

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.