খাদ্য নিয়ে দেশে কোনো হাহাকার নেই: কৃষিমন্ত্রী

দেশে বর্তমানে খাদ্য নিয়ে কোনো হাহাকার নেই বলে দাবি করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। শুক্রবার (১০ জুন) দুপুরে ওসমানী মিলনায়তনে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, দেশে খাদ্যের কোনো হাহাকার নাই। বর্তমানে চালের দাম একটু বেড়েছে। তবে এর পেছনে যৌক্তিক কারণও আছে। গমের দাম বাড়ায় মানুষ চালের দিকে ঝুঁকেছে। তাই চালের ওপর চাপ বেড়েছে। ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে গমের আমদানি কমেছে। সেজন্য চালের উপর চাপটা বেড়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ মুহূর্তে কৃষকরা পেঁয়াজ, আলুর দাম কম বলে বিক্রি করতে পারছে না। মুরগির দাম কম থাকায় সমস্যায় পড়ছে খামারিরা। দেশে সেরকম হাহাকার নাই।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে এখন চিকন চালের দাম ৬৪-৬৫ টাকা। মোটা চালের দাম কিন্তু বাড়েনি। ৬০-৭০ ভাগ মানুষ গ্রামে বাস করে। সরকার কীভাবে ৬০-৭০ ভাগ মানুষকে সহায়তা দিচ্ছে… সারে অনেক ভর্তুকি দিতে হয়েছে। ভর্তুকিতে ২৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করেছি। সেটা কৃষকদের কাছেই যাচ্ছে। সেটা নিয়ে নয়-ছয়ের সুযোগ নেই। মানুষের আয় কিন্তু বেড়েছে। আমরা সেটাই চাই। আমরা নিজেরাই স্বয়ংসম্পূর্ণ হচ্ছি। ফলে বিদেশ থেকে আমদানি করতে না পারলেও সামনে হয়তো সমস্যায় পড়তে হবে না।

মন্ত্রী আরও বলেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যারা তামাকজাত পণ্য সহ বিভিন্ন পণ্য উৎপাদন করতো, তারাও এখন চোখ ধাঁধানো প্যাকেটে মোরকজাত করে চিকন চাল উচ্চমূল্যে বাজারজাত করছে। আবার এই চাল বিক্রিও হচ্ছে। এতে বুঝা যায় এই ধরণের চালেরও ভোক্তা রয়েছে বাজারে।

এসময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...