ডব্লিউটিওর দ্বাদশ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক স্থগিত

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) দ্বাদশ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। ইউরোপ মহাদেশে করোনা বাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সঙ্গনিরোধ ও ভ্রমণ বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতিতে বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে বৈঠক করা সম্ভব হবে না বলে শেষ মুহূর্তে এই বৈঠক স্থগিত করা হয়েছে।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সাধারণ পরিষদের সভাপতি ডাইসো কাসতিলো এক বিবিৃতিতে বলেছেন, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আবার বেড়ে যাওয়ায় যে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে তাতে আমাদের পক্ষে এই অনুষ্ঠান স্থগিত করা ছাড়া গত্যন্তর ছিল না। পরিস্থিতি অনুকূল হলে নতুন করে বৈঠকের তারিখ ঘোষণা করা হবে’।

ডব্লিউটিওর মহা পরিচালক এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা বলেছেন, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হওয়ায় অনেক মন্ত্রী ও জ্যেষ্ঠ প্রতিনিধি মুখোমুখি বসে বৈঠক করতে পারবেন না। সমস্যা হচ্ছে, এতে সবাই একভাবে অংশ নিতে পারবে না। অনেক প্রতিনিধি দীঢর্ঘদিন ধরে বলে বলে আসছেন, রাজনৈতিকভাবে সংবেদনশীল অনেক বিষয় ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে আলোচনা করা যায় না; বা করা গেলেও ফলপ্রসূ হয় না। এই পরিস্থিতিতে স্বশরীরের বৈফঠক স্থগিতের সুপারিশ করা তাঁর পক্ষে সহজ নয় বলে মনে করেন এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা। তবে প্রতিনিধিদের জীবন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ; সে জন্য তাঁর মত, সতর্ক থাকাই মঙ্গল, তাতে কিছু বাড়াবাড়ি হলে ক্ষতিবৃদ্ধি হয় না’।

তবে কোভিডের মধ্যে অনেক বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। এতে ব্যবসা-বাণিজ্য বেগবান হয়েছে। এই বাস্তবতায় আলোচনার যে পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে, তা ধরে রাখার আহ্বান জানিয়েছেন এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা। তিনি বলেছেন, বৈঠক স্থগিত হওয়ার মানে এই নয় যে আলোচনা থেমে যাবে। বরং বৈঠকে যে প্রতিনিধিদের আসার কথা ছিল তাঁদের আরও ক্ষমতায়ন করা করা উচি; এরপর বৈঠক যখন হবে, তখন যেন তারা ব্যবধান ঘোচাতে পারেন।

এ নিয়ে দ্বিতীয়বার দ্বাদশ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক স্থগিত করা হলো। ২০২০ সালের জুন মাসে কাজাখস্তানে এই বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। এরপর ৩০ নভেম্বর থেকে ৩ ডিসেম্বর বৈঠকের সময় নির্ধারণ করা হয়। এবার বৈঠক জেনেভায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও কাজাখস্তানেরই তাতে সভাপতিত্ব করার কথা ছিল। তবে এই বৈঠক আবার কবে অনুষ্ঠিত হবে, তার দিনক্ষণ এখনো ঠিক করা হয়নি।

 

অর্থসূচক/এমএস/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...