আহছানউল্লাহ’র অধীনে আর কোনো নিয়োগ পরীক্ষা হবে না

আহছানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি আপাতত সরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের চাকরির নিয়োগ পরীক্ষা নিতে পারবে না। পরীক্ষা নেওয়ার জন্য বেসরকারি এই বিশ্ববিদ্যালয়টি যেসব কাজ পেয়েছিল, তা সাময়িক স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তাই ১৩ ও ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় তিন ব্যাংকের দুই পদের লিখিত পরীক্ষা সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

১৩ ও ২০ নভেম্বরের পরীক্ষা ছাড়াও শিডিউল দেয়া আরও ৩টি পরীক্ষা স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছেন ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক হুমায়ুন কবির।

তিনি বলেন, আহছানউল্লাহর মাধ্যমে পরীক্ষা নেয়ার জন্য যে ওয়ার্ক অর্ডার দেয়া হয়েছিল, এগুলো আমরা সব স্থগিত করেছি। ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত পরীক্ষার বিষয়ে আহছানউল্লাহর কাছে ব্যাখা চেয়েছি।

এদিকে, বাংলাদেশ ব্যাংকের বৃহস্পতিবারের বিজ্ঞপ্তিতে সোনালী ও বাংলাদেশ ডেভলপমেন্ট ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার (আইটি) এবং জনতা ও সোনালী ব্যাংকের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডাটাবেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর পদের পরীক্ষা অনিবার্য কারণে স্থগিত করা হয়েছে।

এর মধ্যে সিনিয়র অফিসার আইটি পদের পরীক্ষা ১৩ নভেম্বর এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট ডাটাবেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর পদের পরীক্ষা ২০ নভেম্বর হওয়ার কথা ছিল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির আওতায় ৬ নভেম্বর বিকেলে রাজধানীর বিভিন্ন কেন্দ্রে রাষ্ট্রায়ত্ত পাঁচ ব্যাংকে অফিসার (ক্যাশ) নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়। ১ হাজার ৫১১টি পদের বিপরীতে এ পরীক্ষায় অংশ নেন ১ লাখ ১৬ হাজার ৪২৭ চাকরি প্রত্যাশী।

অর্থসূচক/মৃত্তিকা সাহা/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •