ফের পাকিস্তানে নিষিদ্ধ টিকটক

0
232

পেশোয়ার হাইকোর্টের রায়ের পর পাকিস্তানে আবারও নিষিদ্ধ করা হলো চীনা অ্যাপ টিকটক। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার পকিস্তানে নিষিদ্ধ করা হলো চীনা অ্যাপ টিকটক।

পেশোয়ার আদালত রায় দেয়, টিকটকে আপলোড করা অনেক বিষয়ই অনৈতিক ও পাকিস্তান সমাজের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। এরপরই পাক প্রশাসন রেগুলেটরকে নির্দেশ দেয় যে, অবিলম্বে সব সার্ভিস প্রোভাইডারকে বলে টিকটক বন্ধ করে দিতে হবে। এই চীনা অ্যাপ লাদাখ-সংঘর্ষের পর ভারতেও নিষিদ্ধ।

পাকিস্তানের দুই আইনজীবী টিকটকের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন। তাদের বক্তব্য ছিল, টিকটকে যে ভিডিও আপলোড করা হয়, তা অনৈতিক ও পাকিস্তানের নৈতিক মূল্যবোধ ও মাপদণ্ডের সঙ্গে খাপ খায় না। আদালত তাদের যুক্তি মেনে নিয়েছে।

টিকটক অবশ্য এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে। তারা জানিয়েছে, টিকটক সবসময়ই সৃজনশীলতাকে উৎসাহ দিয়েছে। আপত্তিকর পোস্ট তারা সরিয়ে দেয়। তার জন্য উপযুক্ত মেকানিজম তাদের আছে।

পাকিস্তানে এর আগেও টিকটক নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার তা নিষিদ্ধ হলো। ২০২০ সালের অক্টোবরে পাকিস্তানে প্রথমবার টিকটক নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। তখন এই নিষেধাজ্ঞা কয়েক দিন চলে। টিকটক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, অশ্লীল ও অনৈতিক পোস্ট যারা দিচ্ছে, তাদের সব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।

একই বছরে ইউ টিউবকেও আপত্তিকর ভিডিও সরিয়ে দেয়ার নির্দেশ দেয় পাকিস্তান টেলিকম অথরিটি। সূত্র: এপি, এএফপি

অর্থসূচক/এএইচআর