করোনার টিকার ৭৫ শতাংশ গেছে ১০ দেশে

0
180

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, এখন পর্যন্ত বিশ্বের মোট টিকার ৭৫ শতাংশ গেছে মাত্র ১০টি দেশের হাতে। অথচ ১৩০টি দেশ টিকার একটি ডোজও পায়নি। এ বিষয়ে তিনি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বে জরুরি ভিত্তিতে একটি বৈশ্বিক টিকাদান পরিকল্পনা গ্রহণ করা দরকার। যাতে ক্ষমতা, বৈজ্ঞানিক দক্ষতা, উৎপাদন ও অর্থনৈতিক সক্ষমতাসম্পন্ন সব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে এক কাতারে নিয়ে আসা যায়। এই মহামারি থেকে আমাদের যেকাউকে বেরিয়ে আসার একমাত্র পথ আমাদের সবার জন্য টিকার সহজলভ্যতা নিশ্চিত করা।

এমন পরিস্থিতিতে জাতিসংঘ কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে টিকাদানের ক্ষেত্রে একটি সমন্বিত বৈশ্বিক প্রচেষ্টা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে। সেই সঙ্গে বিশ্ব সংস্থা সতর্ক করে বলেছে, এ মহামারি নিয়ন্ত্রণের প্রাথমিক প্রচেষ্টায় বৈষম্যের এই বিরাট ফারাক গোটা বিশ্বকে ঝুঁকিতে ফেলেছে।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো আবরার্ড টিকার সরবরাহ ও প্রাপ্তি নিয়ে অবিচারের নিন্দা জানান। তিনি এটাকে বৈষম্য হিসেবে আখ্যায়িত করে এজন্য ধনী দেশগুলোকে দায়ী করেছেন। যুক্তরাজ্যের আহ্বানে করোনার টিকা নিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রথম ভার্চ্যুয়াল অধিবেশনে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত করেন। এতে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা অংশ নেন।

বৈঠকে বলা হয়, এই মহামারি প্রতিরোধে বিশ্বকে একসঙ্গে কাজ করা একটি নৈতিক দায়িত্ব। সারা বিশ্বে ইতিমধ্যে ২৪ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে করোনায়।

অর্থসূচক/এএইচআর