বেরিলের দাপটে লন্ডভন্ড টেক্সাস

আমেরিকার টেক্সাসে আছড়ে পড়ে বেরিল ঝড়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের উপকূল হয়ে এই ঝড় আমেরিকায় ঢুকেছে। আগের চেয়ে এর ভয়াবহতা অনেকটা কমে গেলেও বেরিলের দাপটে তছনছ হয়ে গেছে টেক্সাসের উপকূল অঞ্চল। প্রবল বৃষ্টিতে শুরু হয়েছে বন্যা।

সোমবার টেক্সাস উপকূলে পৌঁছায় বেরিল ঝড়। সারাদিন ধরে টেক্সাসের উপকূলবর্তী অঞ্চল কার্যত লন্ডভন্ড করে দিয়েছে এই ঝড়। সঙ্গে প্রবল বৃষ্টিতে কোনো কোনো অঞ্চলে বন্যা শুরু হয়েছে। ঝড়ের দাপটে এখনো পর্যন্ত চারজনের মৃত্য়ুর খবর পাওয়া গেছে। উদ্ধারকারীরা সব জায়গায় এখনো পৌঁছাতে পারেননি।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের উপকূল অঞ্চল ভাসিয়ে এসেছে এই ঝড়। টেক্সাসে প্রবেশের সময় ঝড়ের শক্তি অনেকটাই কমে এসেছিল। তাকে আর হারিকেন হিসেবে দেখা হচ্ছিল না। মৃতদের মধ্যে দুইজনের পরিচয় জানা গেছে। একজনের বয়স ৫৩ এবং অন্য়জনের বয়স ৭৪। দুইজনের বাড়ির উপরেই গাছ ভেঙে পড়ে।

বন্য়ার পানিতে এক পুলিশকর্মী ভেসে গেছেন বলেও জানা গেছে। ঝড়ের সময় প্রায় ২৫ লাখ মানুষের বাড়ি বিদ্য়ুৎহীন হয়ে পড়ে। স্থানীয় গভর্নর জানিয়েছেন, বিদ্য়ুৎ আসতে দিনকয়েক সময় লাগবে। কর্মীরা কাজ শুরু করেছেন। কিন্তু আবহাওয়ার কারণে দ্রুত কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না।

ঝড়ের পর প্রবল বৃষ্টিতে প্লাবিত একাধিক হাইওয়ে। সারাদিনে প্রায় এক হাজার উড়ান বাতিল হয়েছে বলে জানা গেছে। টেক্সাসে একাধিক তেল শোধনাগার আছে। ঝড়-বৃষ্টির জেরে কয়েকটি শোধনাগার বন্ধ করে দিতে হয়।

এর আগে ক্য়াটেগরি পাঁচ হারিকেন হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং মেক্সিকোতে তাণ্ডব চালিয়েছে এই ঝড়। সব মিলিয়ে সেখানে ১১ জনের মৃত্য়ু হয়েছে। টেক্সাসের উপকূলে পৌঁছে ঝড়টি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। সূত্র: ডিডাব্লিউ, রয়টার্স, এপি, এএফপি

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.