তুরস্কে কারখানা করছে চীনের বিওয়াইডি

তুরস্কে কারখানা করতে যাচ্ছে বৃহত্তম বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি বিওয়াইডি। গাড়ির উৎপাদন এখন আর চীনের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে চায় না কোম্পানিটি আর এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে তুরস্কের নতুন কারখানায় এক বিলিয়ন বা ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে কোম্পানিটি।

তুরস্কের সরকারি সংবাদ সংস্থা আনাদোলুর সূত্রে জানা গেছে, এই কারখানায় বছরে দেড় লাখ গাড়ি উৎপাদন করা যাবে। ২০২৬ সালের শেষ দিকে এই কারখানা উৎপাদনে আসবে এবং তাতে পাঁচ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

সম্প্রতি ইস্তাম্বুলে এই কারখানা নির্মাণের চুক্তি হয়েছে। বিওয়াইডির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াং চুয়ানফু ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ বিষয়ে বিবিসি বিওয়াইডির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেয়নি।

মূলত ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে চাপে পড়ায় বিওয়াইডি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে সংবাদে বলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন গত সপ্তাহে চীনে উৎপাদিত বৈদ্যুতিক গাড়িতে শুল্ক বাড়িয়েছে। উভয় দেশেরই এক যুক্তি, স্থানীয় গাড়িশিল্পের সুরক্ষা দিতেই এই সিদ্ধান্ত

ইইউয়ের এই সিদ্ধান্তের কারণে ইউরোপের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে চীনে উৎপাদিত বৈদ্যুতিক গাড়িতে অতিরিক্ত ১৭ দশমিক ৫ শতাংশ শুল্ক দিতে হবে। এর আগে ১০ শতাংশ আমদানি শুল্ক ছিল। তুরস্কের সরকারও নিজ দেশের শিল্পের সুরক্ষায় চীনে উৎপাদিত বৈদ্যুতিক গাড়ি আমদানিতে অতিরিক্ত ৪০ শতাংশ শুল্কারোপ করেছে।

এর আগে গত মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চীনে উৎপাদিত বৈদ্যুতিক গাড়ি, সৌর প্যানেল, ইস্পাত ও অন্যান্য পণ্যে শুল্ক বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেন। হোয়াইট হাউস বলেছে, চীনের অন্যান্য বাণিজ্যনীতির জবাবে এবং দেশে কর্মসংস্থান বাড়াতে এই সিদ্ধান্ত।

মার্কিন বিনিয়োগ গুরুখ্যাত ওয়ারেন বাফেটের বিনিয়োগ আছে বিওয়াইডিতে। ইলন মাস্কের টেসলার পর এটিই এখন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম বৈদ্যুতিক গাড়ি কোম্পানি।

এই পরিস্থিতিতে অতিরিক্ত শুল্কের হাত থেকে রেহাই পেতে বিওয়াইডি বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে উৎপাদন ছড়িয়ে দিচ্ছে। গত বছরের শেষ দিকে তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যদেশ হাঙ্গেরিতে কারখানা নির্মাণের ঘোষণা দেয়। ইউরোপে এটাই তাদের প্রথম কারখানা। ধারণা করা হচ্ছে, এই কারখানায় কয়েক হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

গত বৃহস্পতিবার বিওয়াইডি থাইল্যান্ডে বৈদ্যুতিক গাড়ি কারখানা উদ্বোধন করেছে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এটাই তাদের প্রথম কারখানা। বিওয়াইডি বলেছে, থাইল্যান্ডের এই কারখানায় বছরে ১ লাখ ৫০ হাজার গাড়ি উৎপাদন করা যাবে। এতে এক লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

এখানেই শেষ নয়, বিওয়াইডি বলেছে, এবার মেক্সিকোতে কারখানা নির্মাণের পরিকল্পনা আছে তাদের।

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.