হামাসের সঙ্গে ইসরায়েলের বোঝাপড়ার ইঙ্গিত

২০২৩ সালের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামাসের হামলার পর থেকে ইসরায়েল গাজায় হামলা চালিয়ে যাচ্ছে৷ যার ফলে এখনো পর্যন্ত প্রায় ৪০ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছে৷ এদিকে এখনো ১১৬ জন ইসরায়েলি গাজায় আটক রয়েছে বলে ধারণা করা হয়৷ যদিও তাদের মধ্যে সবাই জীবিত কিনা, সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে৷ আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতায় অবশিষ্ট পণবন্দিদের মুক্তি ও অস্ত্রবিরতির একাধিক প্রচেষ্টা এখনো পর্যন্ত সফল হয়নি৷ মার্কিন প্রশাসন এবার পণবন্দিদের মুক্তির প্রশ্নে হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে বোঝাপড়ার আশা করছে৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে বোঝাপড়ার দাবি করেছেন৷ তবে তাঁর মতে, সেই পরিকল্পনা কার্যকর করার ক্ষেত্রে কিছু বিষয়ে এখনো সমঝোতা হয়নি৷ ফলে আগামী কয়েক দিনে চূড়ান্ত সাফল্যের আশা নেই৷ বৃহস্পতিবার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু টেলিফোনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন৷ তিনি পণবন্দিদের মুক্তির লক্ষ্যে হামাসের সঙ্গে আলোচনা আবার শুরু করার জন্য কাতারের রাজধানী দোহায় এক প্রতিনিধিদল পাঠানোর সিদ্ধান্তের কথা বলেন৷

সেই কর্মকর্তার মতে, নেতানিয়াহু আবার আলোচনার ছাড়পত্র দেওয়ায় বাইডেন সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন৷

পরে জানা গেছে, ইসরায়েলের বৈদেশিক গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ডাভিড বারনেয়া স্বয়ং দোহায় যাচ্ছেন৷ শুক্রবারই সেই আলোচনা হওয়ার কথা৷ সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের সূত্র অনুযায়ী, তিনি কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ মহম্মদ বিন আবদুলরহমান আল তানির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন৷

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বৃহস্পতিবার রাতে মন্ত্রিসভার নিরাপত্তা বিষয়ক সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন৷ কাতার ও মিশরের মধ্যস্থতাকারীদের পাঠানো প্রস্তাব নিয়ে তাঁদের মধ্যে আলোচনা হয়৷ গাজায় ইসরায়েলি সামরিক অভিযান বন্ধ করে পণবন্দিদের মুক্তির লক্ষ্যে বোঝাপড়ার জন্য দেশে-বিদেশে প্রবল চাপের মুখে রয়েছে নেতানিয়াহুর সরকার৷ যদিও তাঁর জোট সরকারের উগ্র ধর্মীয় ও জাতিয়তাবাদী শরিকরা হামাসের সঙ্গে আপোশের ঘোর বিরোধিতা করে আসছে৷

বাইডেন প্রশাসন বর্তমান সংকটের কূটনৈতিক সমাধানের লক্ষ্যে জোরালো উদ্যোগ চালিয়ে যাচ্ছে৷ গাজায় শান্তি ফেরাতে কাতার, মিশরসহ অন্যান্য দেশের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছেন মার্কিন প্রতিনিধিরা৷ গত মে মাসে বোঝাপড়ার এক কাঠামো প্রস্তুত হলেও ইসরায়েল ও হামাস এতকাল সেই পথে এগোতে দ্বিধা করছিল৷ এবার হামাসের কিছু পালটা প্রস্তাবের ভিত্তিতে চূড়ান্ত বোঝাপড়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেই মার্কিন কর্মকর্তা মনে করছেন৷ একাধিক সাংবাদিকদের সামনে তিনি সেই আশার আলো দেখানোয় বিষয়টি বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে৷ সূত্র: ডিডাব্লিউ, রয়টার্স, এএফপি

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.