ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যার নিষিদ্ধ করল যুক্তরাষ্ট্র

ব্যবহারকারীর কম্পিউটারে থাকা ঝুঁকিমুক্ত ফাইল কপি করে রাখার পাশাপাশি রুশ গোয়েন্দাদের সাহায্য করার পুরোনো অভিযোগ রাশিয়ার অ্যান্টিভাইরাস নির্মাতা ক্যাসপারস্কির ল্যাবের বিরুদ্ধে রয়েছে। ক্রেমলিনের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার অভিযোগ এনে এবার যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে ক্যাসপারস্কির তৈরি অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার বিক্রি নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনার ঘোষণা করেছে মার্কিন সরকার।

মার্কিন বাণিজ্যসচিব জিনা রাইমন্ডো গতকাল বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বলেছেন, প্রতিষ্ঠানটির (ক্যাসপারস্কি ল্যাব) ওপর মস্কোর প্রভাব মার্কিন অবকাঠামো ও পরিষেবার জন্য উল্লেখযোগ্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে বলে জানা গেছে।

‘আমেরিকানদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে সেগুলো নিজ স্বার্থে ব্যবহারের রুশ সামর্থ্য ও অভিপ্রায়ের’ কারণে যুক্তরাষ্ট্র এমন ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছে বলে জানান তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্যাসপারস্কি যুক্তরাষ্ট্রে সফটওয়্যার বিক্রিসহ কোনো কার্যক্রম চালাতে পারবে না। ইতিমধ্যে বিক্রি করা সফটওয়্যারের আপডেট সেবাও দিতে পারবে না।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আইনি লড়াই চালানোর কথা জানিয়েছে ক্যাসপারস্কি। মার্কিন নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়, এমন কোনো কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তারা যুক্ত নয়, এমন দাবিও করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগের পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যার আপডেট, পুনঃ বিক্রয় ও পণ্যের লাইসেন্সিং ডাউনলোড নিষিদ্ধ করা হবে। তারপর ৩০ দিনের মধ্যে ক্যাসপারস্কির নতুন ব্যবসাও সীমিত করা হবে।

এ বিধিনিষেধ লঙ্ঘনকারী বিক্রেতাদের জরিমানা করবে বাণিজ্য বিভাগ। তারা রুশ সামরিক গোয়েন্দাদের সহযোগিতা করার অভিযোগে ক্যাসপারস্কির দুটি রুশভিত্তিক ও একটি যুক্তরাজ্যভিত্তিক ইউনিট তালিকাভুক্ত করবে।

মার্কিন বাণিজ্য বিভাগ জানায়, বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানটির সদর দপ্তর রাশিয়ার মস্কোতে হলেও বিশ্বের ৩১টি দেশে তাদের কার্যালয় রয়েছে। ২০টির বেশি দেশের ৪০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী ও ২ লাখ ৭০ হাজার করপোরেট গ্রাহককে ক্যাসপারস্কি নিয়মিত পরিষেবা দিচ্ছে। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের কত গ্রাহকের ওপর এই নিষেধাজ্ঞার প্রভাব পরবে, সেটি গোপন রাখা হয়েছে।

অবশ্য মার্কিন বাণিজ্য বিভাগের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ক্যাসপারস্কি সফটওয়্যারের মার্কিন গ্রাহকদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য। এর মধ্যে রয়েছে রাজ্য ও স্থানীয় সরকারসহ এমন সব প্রতিষ্ঠান, যেগুলো টেলিযোগাযোগ, বিদ্যুৎ ও স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে জড়িত।

ক্যাসপারস্কি দীর্ঘদিন ধরে মার্কিন নিয়ন্ত্রকদের লক্ষ্যবস্তু হয়ে আসছে। ২০১৭ সালে দেশটির হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ রুশ গোয়েন্দাদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার অভিযোগে ফেডারেল নেটওয়ার্ক থেকে প্রতিষ্ঠানটির ফ্ল্যাগশিপ অ্যান্টিভাইরাস পণ্য নিষিদ্ধ করে।

অর্থসূচক/

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.