বেটিং সাইটের সঙ্গে চুক্তি থাকায় বিপাকে আমির

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে মোহাম্মদ আমিরকে ফের দলে ফিরিয়েছে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ড সিরিজে দিয়ে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেখা যাবে তাকে। কিন্তু এর আগেই বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি থাকায় বিপাকে পড়েছেন দলটির এই অভিজ্ঞ পেসার। যদিও সেই চুক্তি থেকে সরে আসার ব্যাপারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি) আশ্বস্ত করেছেন তিনি।

২০২০ সালে টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা দেন আমির। এরপর সারোগেট নামে একটি বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেন তিনি। তবে পাকিস্তানের সরকারী আইন অনুযায়ী বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। একই নিয়ম দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের। তাই জাতীয় দলে খেলা কোনো ক্রিকেটার এমন কোনো কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকতে পারবে না। আমির যেহেতু আবারো জাতীয় দলে ফিরেছেন, তাই পিসিবি এই পেসারকে নিয়মের ব্যাপারে সতর্ক করেছেন। যেখানে পিসিবি তাকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সারোগেট বেটিং কোম্পানির কোনো বিজ্ঞাপনে তার ছবি ব্যবহার করা যাবে না।

মূলত কোম্পানিটি গতকাল আমিরের ছবি ব্যবহার করে একটি বিজ্ঞাপন দিয়েছিল। এরপরই বিষয়টি সকলের নজরে আসে। অবশ্য পাকিস্তান ক্রিকেট দাবি করছে আমির কোম্পানিটির সঙ্গে চুক্তিটি বাতিল করবেন। এমনকি তাদের দেয়া সেই সাম্মানিও ফিরিয়ে দেবেন তিনি। এই বিষয়ে পিসিবিকে আশ্বস্ত করতে সক্ষম হয়েছেন আমির।

পিসিবির একজন মুখপাত্রের সূত্র অনুযায়ী পাকিস্তান ক্রিকেট জানিয়েছে যে, আমির বোর্ডকে আশ্বস্ত করেছেন যে এটি একটি পুরনো চুক্তি। সংস্থাটি তার সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আমিরের ভিডিওগুলোও সরিয়ে দিয়েছে। আমির সম্মতিকৃত অর্থ ফেরত দিয়ে চুক্তিটি বাতিল করে দিতে পারেন। তিনি আশ্বস্ত করেছেন যে কোম্পানিটি ভবিষ্যতে প্রচারের জন্য তার ছবি ব্যবহার করবে না।

এর আগে ২০১০ সালে ইংল্যান্ড সিরিজে স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে আমিরকে পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রন সংস্থা আইসিসি। এরপর দলে ফিরে ২০২০ সালে অবসর নেন। এবার সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীকাল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফের দেশের জার্সি জড়িয়ে মাঠে নামার কথা ৩২ বছর বয়সী এই পেসারের।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.