মসিউর রহমান রাঙ্গার মনোনয়ন স্থগিত

জাতীয় পার্টি সাবেক মহাসচিব এবং রংপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বর্তমান স্বতন্ত্র প্রার্থী রওশনপন্থি নেতা মসিউর রহমান রাঙ্গাসহ চার জনের মনোনয়ন স্থগিত করেছে রিটার্নিং কর্মকর্তা। অন্য তিনজন হলেন- বাংলাদেশ কংগ্রেসের শ্যামলী রানী, ওয়ার্কার্স পার্টির বখতিয়ার হোসেন ও সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের সবুজ আহাম্মেদ।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) রংপুর জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় তাদের মনোনয়ন স্থগিত করা হয়।

এ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোবাশ্বের হাসান বলেন, কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে তার মনোনয়ন স্থগিত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আজ বিকেল ৪টার মধ্যে মামলার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করতে বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র দেখে মনোনয়নের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

এই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী রেজাউল করিম রাজু, জাতীয় পাটির প্রার্থী আসিফ শাহারিয়ারসহ সাত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ হোসেনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ওই প্রার্থীর দাখিল করা শতকরা এক ভাগ ভোটারের স্বাক্ষর সংবলিত স্বাক্ষর ভুল থাকায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

এবারের সংসদ নির্বাচনে ২৮৯ আসনে দলীয় প্রার্থী দিয়েছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। জাপা মহাসচিব মজিবুল হক চুন্নু এসব আসনে মনোনয়ন পাওয়া ব্যক্তিদের নাম ঘোষণা করেন। আর সেই তালিকায় রাঙ্গার নাম পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ মসিউর রহমান রাঙ্গাকে মনোনয়ন দেয়নি জাপা।

রাঙ্গাকে মনোনয়ন না দেওয়ার ব্যাখ্যায় চুন্নু বলেন, তাকে দলের সব পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এজন্য তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি।

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ ও দল থেকে বহিষ্কৃত মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গার নির্বাচনী আসন রংপুর-১। এবার সেখানে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ারকে দলীয় প্রার্থী করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.