আজও সারাদেশে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে

সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে আজও সারা দেশে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। একই সঙ্গে দেশের তিন বিভাগের কোথাও কোথাও অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব বিভাগেই বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির প্রবণতা কিছুটা কম চট্টগ্রাম বিভাগে। তবে এখন বৃষ্টি বেশি হচ্ছে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে। এ সময় সবচেয়ে বেশি ১৫৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে নেত্রকোণায়।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ঢাকায় ৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হলেও গত রাতে ঢাকায় অতিভারী বৃষ্টি হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ঢাকায় ১২২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ভারী বৃষ্টিতে রাজধানীর বিভিন্ন অংশে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। তবে শুক্রবার সকাল থেকে ঢাকার আকাশ অনেকটাই রোদময়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, দক্ষিণ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপ বর্তমানে বিহার এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু উত্তরাংশে সক্রিয় এবং বাংলাদেশের অন্যত্র মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানান তিনি।

আগামী দুইদিনে বৃষ্টির প্রবণতা কিছুটা কমে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে জানিয়ে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, বর্ধিত পাঁচদিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে।

বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

অর্থসূচক/এমএস

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.