ঢাবিতে নুরদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গণঅধিকার পরিষদ একাংশের সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ তার সহযোগীদের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

বিরোধী রাজনৈতিক দলের উপর হামলা-মামলা, জনসাধারণ ও শিক্ষার্থীদের জানমালের ক্ষয়ক্ষতি ও হয়রানি, মাদ্রাসা শিক্ষার্থী হাফেজ রেজাউল হত্যা ও বুয়েট শিক্ষার্থীদের আটকের প্রতিবাদে আজ (বুধবার) বিকেল চারটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির রাজু ভাস্কর্যে বিক্ষোভ সমাবেশ ডেকেছিল ছাত্র অধিকার পরিষদ।

বুধবার (২ আগস্ট) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) ছাত্র অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ সমাবেশ শুরুর ঠিক আগে এ হামলা ও মারধরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নুরুল হক নুরসহ গণঅধিকার পরিষদের অনেক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহত অবস্থায় ১১ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আহতরা হলেন- উচ্চতর পরিষদের সদস্য আব্দুর জাহের (৩০), ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা মেহেদী হাসান (২৩), রাকিব (২৫), তোফায়েল আহমেদ (২৫), মো. রাকিব (২৮), সাব্বির (২৫), সাদ (২৩), তুহিন (২৫), ইউসুফ (২৩), আকাশ (২২) ও পথচারী কামরুজ্জামান(৩৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্র অধিকার পরিষদের সমাবেশের আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকতের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে মহড়া দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা শাহবাগের দিক থেকে মিছিল নিয়ে টিএসসি আসা মাত্রই তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় ছাত্রলীগ। এসময় ভিপি নুরের উপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং নুর ও তার সহযোগীদের মারতে মারতে টিএসসি থেকে দোয়েল চত্বরের দিকে নিয়ে যান।

গণঅধিকার পরিষদের উচ্চতর পরিষদের সদস্য আবু হানিফ বলেন, ছাত্র অধিকার পরিষদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচিতে দাঁড়াতেই দেয়নি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। রাজু ভাস্কর্যে আসার সঙ্গে সঙ্গে নুরুল হক নুরসহ নেতাকর্মীদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে তারা। প্রায় ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। তারা ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নিচ্ছে।

এ বিষয়ে ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত বলেন, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছে এটা মিথ্যা কথা। নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে কিছু বহিরাগত ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ জানায়। তখন বহিরাগত সন্ত্রাসীরা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করলে শিক্ষার্থীরা প্রতিরোধ করে।

অর্থসূচক/এমএস

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.