অর্থ পাচারের দায়ে পানামার সাবেক প্রেসিডেন্টের কারাদণ্ড

দুর্নীতি করে বিশাল অঙ্কের অর্থ বিদেশে পাচারের অভিযোগে সাবেক প্রেসিডেন্ট রিকার্ডো মার্টিনেজকে ১০ বছরেরও বেশি সময়ের কারাদণ্ড দিয়েছে পানামার আদালত৷ পাশাপাশি ১৯.২ মিলিয়ন ডলার জরিমানাও করা হয়েছে৷

আগামী বছর পানামায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন৷ তার আগে রিকার্ডো মার্টিনেজের আবার নির্বাচনে অংশ নেয়ার পরিবল্পনা জোর ধাক্কা খেলো৷ কারণ শাস্তি বহাল থাকলে তিনি পরবর্তী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না৷

রায় ঘোষণার পর ৭১ বছর বয়সি সাবেক প্রেসিডেন্টের আইনজীবী জানান, এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে৷ আপিল মামলায় হেরে গেলে রিকার্ডো মার্টিনেজ আর নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না৷

রিয়ালিজান্ডো মেটাস পার্টির নেতা রিকার্ডো মার্টিনেজ অবশ্য নিজেকে পুরোপুরি নির্দোষ দাবি করেছেন৷ তার দাবি, রাজনৈতিক ক্যারিয়ার শেষ করে দিতেই দুর্নীতির এই ‘মিথ্যা অভিযোগ’৷

এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘তারা যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে আমাকে দোষী সাব্যস্ত করতে চাইছে তা আমরা জানি৷ কিন্তু অবৈধ তহবিলের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই৷’

২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত পানামার প্রেসিডেন্ট ছিলেন রিকার্ডো মার্টিনেজ৷ অর্থ পাচার ছাড়াও ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে৷ সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.