৭৫ কোটি টাকা চুরির চাঞ্চল্যকর মামলার শুনানি পেছাল

ড্রিল দিয়ে দেয়াল ছিদ্র করে প্রায় পঁচাত্তর কোটি টাকা লুট করে নিয়ে যায় একদল চোর৷ সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা ছিল পোল্যান্ডের একটি আদালতে৷

তখন বাদীদের একজনের পক্ষে মেডিক্যাল সার্টিফিকেট দিয়ে বলা হয়, তিনি খুবই অসুস্থ৷ তাই মামলার শুনানি সেদিন স্থগিত করা হয়৷ জুন মাসের শুরুতে আবার মামলার শুনানি হবে৷ এই মামলায় আসামীদের ১৫ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে বলে জানা গেছে৷

তিন বছর আগে ঘটনাটি ঘটে ডাচ-জার্মান সীমান্তে জার্মান কাস্টমস অফিসে৷ তদন্তে জানা গেছে, সীমান্তবর্তী এমেরাইশ নামক জায়গায় কাস্টমস অফিসে ২০২০ সালের অল সেইন্টস ডে’র ছুটির দিনে চোরেরা ড্রিল মেশিন দিয়েদেয়ালে ছিদ্র করে ভেতরে ঢোকে৷ বেসমেন্টে অফিসের সিন্দুক ভেঙে ৬৫ লাখ ইউরো বা প্রায় পঁচাত্তর কোটি টাকা চুরি করে নিয়ে যায়৷ মোট চারজন এই কাজটি করেন৷ তিনজন ভেতরে থাকেন এবং একজন বাইরে পাহারা দেন৷ তারা পরে পোল্যান্ডে ধরা পড়েন৷

এছাড়া এই ঘটনায় একজন কাস্টমস কর্মী ও আরেক নারী জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে৷ এই ঘটনায় কাস্টমস অফিসের তথ্য বাইরে ফাঁস করে দেয়ার বিষয়টি আলোচনায় এসেছে৷ কাস্টমসের কর্মী চোরদের পরিকল্পনা করতে সহযোগিতা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

‘এই চুরিতে ভেতরের তথ্যগুলো দরকার ছিল’- পোলিশ তদন্তকারী বলেন৷ ২০২২ সালের মে মাসে পোলিশ সীমান্তে গ্যোর্রিৎস নামক জায়গায় সন্দেহভাজন চার ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়৷ পরে আরো তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রচুর অর্থও জব্দ করে৷ সূত্র: ডিডাব্লিউ, ডিপিএ

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...