সরকারি সিকিউরিটিজ লেনদেন নিয়ে সিএসইর সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান

বাংলাদেশ পুঁজিবাজারে স্টক এক্সচেঞ্জ ট্রেডিং প্লাটফর্মে সরকারি সিকিউরিটিজ লেনদেনের গতি বেগবান করার জন্য ট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) একটি সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সোমবার (০৫ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামস্থ প্রধান কার্যালয় থেকে অনলাইন প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন মার্চেন্ট, এসেট ম্যানেজমেন্ট, কোম্পানিজ, ডিলার এবং ব্রোকারেজ কোম্পানিজ থেকে প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সিএসইর ট্রেনিং এন্ড এওয়্যারনেস বিভাগের প্রধান এম সাদেক আহমেদ। তিনি সরকারি বন্ড ট্রেডিংয়ের প্রেক্ষাপট ও এর সাম্প্রতিক সুবিধাদি সম্পর্কে অবহিতকরনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শুরু করেন।

অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্যে সিএসইর ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ গোলাম ফারুক বলেন, বাংলাদেশে বন্ড মার্কেট খুবই ছোট, বাংলাদেশের জিডিপিতে এর অবদান নামমাত্র। কোম্পানিগুলোর মূলধন সংগ্রহে ব্যাংক ঋণের উপর বেশী নির্ভর করায় এই বাজার গভীরতা পায়নি। একটি কার্যকরী বন্ড বাজার থাকলে, সরকার মেঘা অবকাঠামো প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য সহজেই এই বাজার থেকে নিয়মিত তহবিল সংগ্রহ করতে পারত। বন্ডগুলি ইক্যুইটির জন্য দীর্ঘমেয়াদী এবং স্বল্পমেয়াদী অর্থায়নের বিকল্প হিসেবে কাজ করে। বন্ডগুলি যদি পুঁজিবাজারে ট্রেডিং হয়, বন্ড মার্কেটের আকারও বৃদ্ধি পাবে, সাথে সাথে পুঁজিবাজারে পণ্যের বৈচিত্র্যতাও আসবে। আর সেক্ষেত্রে পুঁজিবাজার জিডিপি বৃদ্ধির পাশাপাশি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহযোগী খাত হিসেবে উন্মোচিত হবে।

সিএসইর পক্ষে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন, হেড অফ আইটি, মোহাম্মাদ মরতুজা আলম, হেড অফ ট্রেক মার্কেটিং এন্ড সার্ভিসেস, মোহাম্মদ মনিরুল হক, হেড অফ বিজনেস প্রোমোশন এন্ড মার্কেটিং, মোঃ নাহিদুল ইসলাম খান, হেড অফ সারভিলেন্স এন্ড মার্কেট অপারেসন্স, প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল)’র সিডিএস অ্যাপ্লিকেশন এন্ড ট্রেনিং বিভাগের মোঃ মইনুল হক। তিনি বিপিআইডি থেকে বিওআইডি-তে শেয়ার পাঠানোর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া উপস্থাপন করেন। সিএসইর আইটি বিভাগ থেকে স্টক এক্সচেঞ্জ ট্রেডিং প্লাটফর্মে সরকারি সিকিউরিটিজ লেনদেনের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া উপস্থাপন করা হয় । পরবর্তীতে অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের প্রেক্ষিতে উপস্থিত বক্তারা সেগুলোর বাস্তবসম্মত ও গৃহীত পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশনা প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, সিএসই সরকারি সিকিউরিটিজ লেনদেনের প্রক্রিয়াটি সকলের কাছে বোধগম্য ও জনপ্রিয় করতে এবং এক্সচেঞ্জ প্লাটফর্ম-এর লেনদেনের গতিশীলতা আনতে গত মে মাস থেকেই সরকারি সিকিউরিটিজের উপর বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং ও সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছে। প্রতিবারের ন্যায় এবারও সিএসই’র এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় ২০০ জন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলে আশা ব্যক্ত করেন যে, সরকারি সিকিউরিটিজ এর সেকেন্ডারি লেনদেন, স্টক এক্সচেঞ্জ-এর প্লাটফর্মে করার মাধ্যমে দেশে একটি প্রানবন্ত বন্ড মার্কেট গড়ে উঠবে। এখন থেকে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার শুধু ইকুইটি মার্কেটের উপর নির্ভরশীল হবে না বরং এটি বন্ড মার্কেটের উপরও নির্ভরশীল হবে এবং এতে করে বিনিয়োগকারীদের ঝুঁকিও অনেকখানি হ্রাস পাবে। সেই সাথে দেশের পুঁজিবাজার দেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণে আরও সম্প্রসারিত হবে।

অর্থসূচক/এমআর

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...