ঢাবির সমাবর্তনের গাউন সরবরাহ নিষিদ্ধ পলিথিনে, বানান ভুল

ভিসির দুঃখপ্রকাশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আগামী ১৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তনের গাউন সরবরাহে নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবহার এবং টাইয়ের পেছনে লেখায় ভুল দেখা গেছে। এতে ইংরেজি ভাষায় শুদ্ধ ফিফটি থার্ড শব্দের পরিবর্তে ভুলভাবে ‘53rd’ স্থলে ‘53th’ মুদ্রিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুল মতিন ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে সমাবর্তন উপলক্ষে দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিত বলে উল্লেখ করেছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, ‘পলিথিন ব্যবহার অনাকাঙ্ক্ষিত, এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। দুটি ভেন্যুতে এ কাজ করা হয়েছে। অসতর্কতাবশত এটি ঘটেছে, আমরা দুঃখিত। এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। সামনের দিন থেকে ইনভাইটেশনের কার্ডেও পলিথিনের যে প্রলেপ দেওয়া হয় সেটিও বন্ধ করা হবে।’

সমাবর্তন উপলক্ষে গ্র্যাজুয়েটদের দেওয়া টাই-য়ে ‘53rd’ স্থলে ‘53th’ লেখার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আসলে এটি একটি অপ্রত্যাশিত ভুল। আমরা কর্তৃপক্ষের কাছে এর জবাব চেয়েছি। এটি যারা তৈরি করেছে, তাদের প্রিন্টে ভুল হয়েছে। তাদেরকে জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছি। মেহমানদের জন্য নতুন করে টাই তৈরি করে দিতে বলেছি।’

অধিভুক্ত সাত কলেজের গ্র্যাজুয়েটদের ডিজিটাল স্ক্রিনে সমাবর্তন নিতে আপত্তির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটি চ্যান্সচেলর মহোদয় যেভাবে নির্দেশনা ও সম্মতি দেন, সেভাবেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজন করবে। বিষয়টা পুরোপুরি চ্যান্সেলরের ওপর নির্ভর করে।’

উপাচার্য বলেন, ‘স্মরণীয় করে রাখার জন্য গ্রাজুয়েটদের স্যুভেনির দেওয়া হয়। সমাবর্তনের আগে গাউনের সঙ্গে ছেলেদের জন্য টাই, মেয়েদের পার্স দেওয়া হয়। তাঁদের জন্য ব্যাগ ও মগ বানানো হয়েছে। সমাবর্তন শেষে গাউন জমা দিয়ে তারা এগুলো নিয়ে যাবেন।’

এ ছাড়া সমাবর্তনের বিষয়ে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সমাবর্তনের মূল ভেন্যু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ এবং অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের গ্র্যাজুয়েটরা ঢাকা কলেজ ও ইডেন কলেজ ভেন্যু থেকে সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করবেন। আগামী শনিবার (৩ নভেম্বর) সকাল ১১টা ৫৫ মিনিটে চ্যান্সেলরের শোভাযাত্রা এবং ১২টায় সমাবর্তন শুরু হবে।’

সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন রাষ্ট্রপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মো. আবদুল হামিদ। নোবেল বিজয়ী ফরাসী অর্থনীতিবিদ ড. জ্যঁ তিরোল সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সম্মানসূচক ডক্টর অব লজ ডিগ্রি প্রদান করা হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে মোট ৫২ জনকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ১৩১ জন শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীকে ১৫৩টি স্বর্ণপদক, ১৭ জনকে পিএইচডি, দুজনকে ডিবিএ এবং ৩৫ জনকে এমফিল ডিগ্রি প্রদান করা হবে। সিনেট, সিন্ডিকেট ও একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যরা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এবং অধিভুক্ত কলেজের অধ্যক্ষ/ইনস্টিটিউটের পরিচালকরা সকাল ১১টা ২০ মিনিটে সমাবর্তন শোভাযাত্রা আরম্ভস্থল কার্জন হল প্রাঙ্গণে উপস্থিত থাকবেন। অতিথিরা জিমনেসিয়াম সংলগ্ন গেইট দিয়ে সমাবর্তনস্থলে প্রবেশ করবেন। তাঁদের জন্য সকাল ১০টায় গেইট খোলা হবে এবং তাঁরা সকাল সাড়ে ১১টার মধ্যে অবশ্যই সমাবর্তনস্থলে আসন গ্রহণ করবেন।

অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, বিভাগীয় প্রধান শিক্ষক পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা এবং রেজিস্ট্রেশনকৃত গ্র্যাজুয়েটরা ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন এবং তারা সমাবর্তনস্থলে সকাল ১১টা ২০ মিনিটের মধ্যে আসন গ্রহণ করবেন।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...