৬ মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে তেলের দাম

ইউক্রেনে রাশিয়ার সেনারা অভিযান শুরুর পর আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম ব্যাপকভাবে বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু ইরান এবং পাঁচ জাতি গোষ্ঠীর মধ্যে পরমাণু চুক্তি সই হচ্ছে- এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ায় গতকাল ছয় মাসের মধ্যে তেলের বাজার সর্বনিম্নে পৌঁছেছে।

কারণ ইরানের সঙ্গে নতুন করে পরমাণু চুক্তি সই হলে ইরান তার নির্ধারিত কোটার তেল বিক্রি করার সুযোগ পাবে- এমন ভরসায় দ্রুত তেলের দাম কমতে শুরু করেছে। খবর- পার্সটুডের

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ব্যারেলপ্রতি শতকরা দুই ডলার কমে গেছে তেলের দাম। গতকাল প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম শতকরা ২.৪৭ ভাগ কমে প্রতি ব্যারেল তেল ৯২.৫১ ডলারে বিক্রি হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং মার্কিন প্রশাসন জানিয়েছে, ২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা পুনর্বহালের বিষয়ে ইরানের দেয়া একটি চূড়ান্ত প্রস্তাবনা তারা পরীক্ষা করে দেখছে।

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যকার যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে পুরো ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং আমেরিকায় তেল গ্যাসের ব্যাপক সংকট দেখা দেয়। এ অবস্থায় পশ্চিমা বিশ্ব তেলের বাজারে সরবরাহ বাড়ানোর জন্য ভেনিজুয়েলের দ্বারস্থ হয় এবং বর্তমানে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা পুনর্বহালের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...