ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী রিতা আক্তারকে (২১) ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধারের পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাতে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

রিতা আক্তার বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর এলাকার ধরমপুরে ধরমপুরে স্বামী রাব্বিসহ বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। রাব্বি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

রাব্বির বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, রাত সাড়ে ১১টার দিকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে বাসার জানালার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান রাব্বি। এরপর নিজে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মতিহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন বলেন, ‘লাশ হাসপাতাল মর্গে আছে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন কিনা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে জানা যাবে। তার পরিবারের লোকজন এসেছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে এ ঘটনায় মামলা করা হবে। রিতার স্বামী রাব্বিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।’

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...