বিদেশে চিকিৎসা নিতে হলে খালেদা জিয়াকে আদালতের কাছে যেতে হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল,দেশের মাটিতে সর্বোচ্চ চিকিৎসা নেওয়ার জন্য যাতে কোনো সমস্যা না হয় সে ব্যবস্থা করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি যদি বিদেশে চিকিৎসা নিতে যান তাহলে আদালতে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেতে হবে।

শনিবার (১১ জুন) রাজধানীর কাকরাইলে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সের প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাঁর (খালেদা জিয়া) দেশে থেকে দেশের মাটিতে সর্বোচ্চ চিকিৎসা গ্রহণ করতে যেন অসুবিধা না হয়, সে ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবং তিনি (খালেদা জিয়া) সে হিসেবেই তাঁর চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছেন। তাঁকে যদি বিদেশে যেতে হয়, আবার তাঁকে আইনি প্রক্রিয়া এবং কোর্টের কাছে যেতে হবে। কোর্ট ছাড়া আমাদের এ রাস্তাটি খোলা নেই। সাংবাদিক ভাইয়েরা, আপনারাও জানেন। এখন কোর্ট স্বাধীন… আপনারা নিশ্চয়ই জানেন, কোর্ট তাঁর নিজস্ব মতামত দিয়েছেন। আরও নতুন কোনো মতামত (দিতে হলে) তাঁকে আবার কোর্টে যেতে হবে।’

এ সময় তিনি বলেন, মোহাম্মদপুর থানার ওসির ওপর যে হামলা হয়েছে তা দুঃখজনক। পুলিশের ওপর হামলা আসলে তারা বসে থাকবে এটাও ঠিক না। কেননা দেশের প্রচলিত আইনে যে কারও বিরুদ্ধেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আইনের ব্যত্যয় ঘটালে ব্যবস্থা নেবে, এটাই স্বাভাবিক। পুলিশ সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছে বলেই দেশের জনগণের নিরাপত্তা যেমন নিশ্চিত হয়েছে, তেমনি দুর্বার গতিতে হচ্ছে উন্নয়ন। এ কারণে সবাইকে আরও সংযত হয়ে দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে। কোনো বিশৃঙ্খলা হলে তদন্তপূর্বক অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেও আইনশৃঙ্খলা রক্ষকারী বাহিনী পিছপা হবে না।

গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিএনপির চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন আজ জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল। বর্তমানে মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...