‘পাচারের টাকা ফিরিয়ে আনা মন্দের ভাল’

বিদেশে পাচার করা টাকা দেশে ফিরিয়ে আনার যে সুযোগের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)। তারা মনে করে, বর্তমান পরিস্থিতিতে এটি মন্দের ভাল।

আজ শনিবার (১১ জুন) রাজধানীর পুরানা পল্টনের ইআরএফ কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এই সমর্থনের কথা জানান।

আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট সম্পর্কে নিজেদের মতামত তুলে ধরার উদ্দেশ্যে আইসিএমএবি এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

এতে ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট মো. মামুনুর রশিদ এফসিএমএ, সাবেক প্রেসিডেন্ট ও সাফা উপদেষ্টা ও প্রাক্তন সাফা প্রেসিডেন্ট  একেএম দেলোয়ার হোসেন এফসিএমএ, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. মনিরুল ইসলাম এফসিএমএ, সেক্রটারি এ.কে.এম. কামরুজ্জামান এফসিএমএ ও কোষাধ্যক্ষ মো. আলী হায়দার চৌধুরী এফসিএমএ বক্তব্য রাখেন।

শফিকুল আলম অ্যান্ড কোং চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসের প্রিন্সিপাল অ্যান্ড সিইও মো. শফিকুল আলম এফসিএমএ মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

শফিকুল আলম বলেন, কোভিডজনিত সঙ্কট ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে উদ্ভূত বিশেষ বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে ঘোষিত এই বাজেটে সব দিকের ভারসাম্য রাখার চেষ্টা করা হয়েছে।

বাজেটে করপোরেট কর কমানোর বিষয়টিকে ইতিবাচক উদ্যোগ হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, ধীরে ধীরে করপোরেট করের হার প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, করপোরেট কর কমানো হলে কোম্পানির নীট মুনাফা বাড়ে। বাড়তি মুনাফা পুনরায় বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়। এতে নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়।

আইসিএমএবির প্রেসিডেন্ট মো. মামুনুর রশিদ এফসিএমএ ব্যক্তি ব্যক্তিশ্রেনীর শ্রেণীর করদাতার সর্বোচ্চ করমুক্ত আয়সীমা ৪ লাখ টাকায় উন্নীত করার আহ্বান জানান। এতে মূল্যস্ফীতির চাপে থাকা করদাতাদের একটি অংশ কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবে।

সিনিয়র নাগরিক, যাদের আয়ের উৎস শুধু পেনশন ও সঞ্চয়পত্রের সুদ, তাদেরকে রিটার্ন দেয়া হতে অব্যাহতি দেওয়ার প্রস্তাব করেন তিনি।

তিনি অ্যাডভাইজরি, কনসালটেন্সি প্রফেশনাল, টেকনিক্যাল ইত্যাদি সার্ভিস ফি হতে উৎসে আয়কর কর্তনকে চূড়ান্ত কর হিসেবে গন্য করার দাবী জানান্।
তিনি বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা, কৃষি নিরাপত্তা, চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা, জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা, শিল্পায়ন, ব্যবসা প্রসার ও পূজি বাজার উন্নয়ন, গার্মেন্টস্ সেক্টরে বিশেষ সুবিধা প্রদান, পরিবহন শিল্প এবং বিমান পরিবহন শিল্পের জন্য বিশেষ সুবিধা প্রদানসহ এ খাতে বাজেট বরাদ্দ বাড়ানো প্রয়োজন।
আইসিএমএবি প্রেসিডেন্ট বলেন, বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য প্রতিযোগি দেশগুলির সাথে সামঞ্জস্য রেখে কর্পোরেট ট্যাক্স পূর্ণগঠন এবং বেসরকারি বিনিয়োাগকারীদের আস্থায় আনতে ধারাবাহিক কর নীতি ও ব্যক্তিগত করদাতাদের করের হার পুনর্গঠন করাও প্রয়োজন যাতে স্বল্প আয়ের জনগোষ্ঠি স্বস্তি পায়।

তিনি বলেন, এনবিআর এর ডিজিটাইজেশন, ট্যাক্স রিফর্ম, মহিলা উদ্যোক্তা এবং ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের প্রনোদনা, ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্পে আরো প্রনোদনা প্রদান, স্বাস্থ্য প্রনোদনা, স্বাস্থ্য ইনসুরেন্স, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, ভ্যাট ও ট্যাক্স এর হার সরল করা প্রয়োজন।আইসিএমএবি।

মামুনুর রশিদ বলেন, শ্রম আইন অনুসারে প্রদানকৃত WPPF খাতে খরচকে অননুমোদিত করা সঠিক সিদ্ধান্ত হবেনা। এতে অনেক প্রতিষ্ঠান এই খাতে খরচ প্রদানে অনীহা প্রকাশ করবে।

ব্যক্তি খাতে লভ্যাংশ আয়ের উপর কর্তনকৃত করকে চুড়ান্ত কর হিসেবে ধার্য্য করার আহ্বান জানান তিনি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, লভ্যাংশ আয়ের উপর কর কর্তনের প্রমাণ সংগ্রহ করা অনেক সময়েই সম্ভব হয় না এবং কষ্ট সাধ্য ও সময় সাপেক্ষ ব্যাপার হয়, মাঠ পর্যায়ে করদাতাকে অনেক সমস্যার সন্মূক্ষীন হতে হয়।

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...