ক্রীড়া খাতে বরাদ্দ বেড়েছে

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বাজেট অধিবেশনের দুই দিন আগে আভাস দিয়েছিলেন, গত বছরের তুলনায় এবার বাজেট বাড়ার। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ২০২২-২৩ অর্থ বছরের জন্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে পরিচালন ও উন্নয়ন ব্যয় মিলিয়ে মোট ১২৮১ কোটি ৬৩ লাখ টাকার বাজেট প্রস্তাব করেছেন।

গত অর্থ বছরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংশোধিত বাজেট এর পরিমান ছিল ১২৬৪ কোটি ১৬ লাখ ৬২ হাজার টাকা। এবারের প্রস্তাবিত বাজেট গত বছরের সংশোধিত বাজেটের তুলনায় ১৭ কোটি ৪৬ লাখ ৩৮ হাজার টাকা বেশি।

অর্থমন্ত্রী জাতীয় সংসদে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত বাজেট বক্তৃতায় বলেন, ‘সরকার ক্রীড়ার মানোন্নয়ন ও খেলাধুলার সুযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে আধুনিক স্টেডিয়াম, জিমনেসিয়াম, সুইমিংপুলসহ বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মান ও উন্নয়ন করে আসছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে ক্রীড়া অবকাঠামো নির্মাণ ও উন্নয়নের ৮টি প্রকল্প চলমান রয়েছে, যার মধ্যে অন্যতম হলো উপজেলা পর্যায়ে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্প। পাশাপাশি দক্ষ খেলোয়াড় তৈরীর লক্ষ্যে দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্রশিক্ষক দ্বারা খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণ, গ্রামীন খেলাধুলার মান উন্নয়নে কার্যক্রম গ্রহন ও প্রতিভা অন্বেষনের মাধ্যমে প্রতিভাবান খেলোয়াড় খুঁজে বের করে তাদের দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষন প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়াও দেশী ও আন্তর্জাতিক খেলাধুলার আয়োজন ও অংশগ্রহণের জন্য বিভিন্ন ক্রীড়া ফেডারেশন, এসোসিয়েশন ও সংস্থাকে নিয়মিত আর্থিক অনুদান ও ক্রীড়াসামগ্রী প্রদান করা হচ্ছে।’

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কারকে সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘খেলাধুলাকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কার প্রবর্তন করা হয়েছে যা ক্রীড়াবিদ ও সংগঠকদের প্রদান করা হচ্ছে।’

আজ (৯ জুন) জাতীয় বাজেটে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সার্বিক বাজেট ঘোষণা হয়েছে। বিকেএসপি, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ এসব খাতে বরাদ্দের বিষয়টি আরো পরে স্পষ্ট হবে। ফেডারেশন, জেলা ক্রীড়া সংস্থাগুলোর বরাদ্দ হয় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের মাধ্যমে। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের বরাদ্দ সম্পর্কে এই সংস্থার সচিব পরিমল সিংহ বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেট গত বছর বাজেটের তুলনায় কিছু অংশ বেড়েছে। সংশোধিত বাজেটের পর জানা যাবে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের বরাদ্দের বিষয়টি। আমরা আমাদের প্রস্তাবনা ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে দিয়েছিলাম সেটি অর্থ মন্ত্রণালয় পর্যালোচনা করেছে।’

আজ প্রস্তাবিত ১২৮১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বাজেটের মধ্যে উন্নয়ন খাতে ৪০৫ কোটি ৬৯ লাখ টাকা এবং পরিচালন খাতে ৮৭৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে সংশোধিত বাজেটে উন্নয়ন খাতের পরিমাণ ছিল ৪৫৯ কোটি ১৭ লাখ টাকা এবং পরিচালন খাতের পরিমাণ ছিল ৮০৪ কোটি ৯৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা।

অর্থসূচক/এমএস

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.