প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাই: ১৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অপারেশনের পর প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাইয়ের ঘটনায় ভুক্তভোগী শারমিন আক্তার শিলাকে ১৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ জুন) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় শিলার পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জীবননেছা মুক্তা এ রিট দায়ের করেন। তিনি বলেন, রিট আবেদনটির ওপর বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হবে।

রিটে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সচিব, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার, বরিশাল মেডিক্যালের পরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। রিট আবেদনে ভুক্তভোগী শিলার উন্নত চিকিৎসার জন্য রোগীকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ভর্তি ও তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তার পরিবারের খরচ নির্বাহের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে রিটে আরজি জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ১৬ এপ্রিল রাতে সিজারের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন ঝালকাঠীর নলছিটি উপজেলার বাসিন্দা জিয়াউল হাসানের স্ত্রী শারমিন আক্তার শিলা। অস্ত্রোপচারের পর থেকে পেটে ব্যাথা অনুভব করছিলেন তিনি। পরে তাকে সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তবে সাময়িক সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার কিছুদিন পর শিলা তার পেটে প্রচণ্ড ব্যাথা অনুভব করতে থাকে। তার পেটও ফুলে যেতে থাকে। এরপর গত ২১ মে পেট ফুটো হয়ে পুঁজ বের হতে থাকলে তাকে তাৎক্ষণিকভাবে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে গত ২২ মে তার পেটে আবারও অপারেশন করা হয়।

পুনরায় অস্ত্রোপচার শেষে শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. নাজিমুল হক জানান, দীর্ঘদিন গজ থাকায় পেটের ভেতরে পচন ধরে নাড়ি ফুটো হয়েছে। অপারেশন করা হয়েছে। তার সার্বিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এইচডি/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...