৪৬৫ রানে থামলো বাংলাদেশের ইনিংস

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে ৩৯৭ রানে গুটিয়ে দিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ দল। ব্যাট হাতে দারুণ প্রতিরোধ গড়া দলটি চতুর্থ দিনে এসে খানিক খেই হারিয়েছে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে শরিফুল ইসলাম হাতে চোট পেয়ে ‘রিটায়ার্ড হার্ট’ হয়ে মাঠ ছাড়লে স্বাগতিকদের ইনিংস থামে ৪৬৫ রানে। তাতে লঙ্কানদের বিপক্ষে ৬৮ রানের লিড পেয়েছে অধিনায়ক মুমিনুল হকের দল।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের ১৯৯ রানের অনবদ্য ইনিংসে ভর করে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রান করে সফরকারী। বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে একাই ৬ উইকেট অফ স্পিনার নাঈম শেখ। এটি টেস্টে তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। এরপর ব্যাট করতে নেমে তামিম ইকবাল আর মুশফিকুর রহিমের শতকের সঙ্গে মাহমুদুল হাসান জয় এবং লিটন দাসের ফিফটিতে ৪৬৫ রানের সংগ্রহ পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। শেষ ব্যাটসম্যান শরিফুল হাতে বলের আঘাত পেলে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিক দল।

বুধবার চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশন শেষে ৬ উইকেট খুইয়ে বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ছিল ৪৩৬ রান। ৩৯ রানের লিড নিয়ে বিরতি কাটিয়ে মুশফিক ১০৪ এবং নাঈম হাসান ৪ রান নিয়ে আবার ব্যাটিং শুরু করেন। তবে ফিরে সুবিধা করতে পারেননি মুশফিক। ‘সুইপ’ খেলতে গিয়ে নিজের উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এসেছেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান।

লাসিথ এম্বুলডেনিয়ার করা বলটি লেগ স্টাম্পের একটু বাইরে পিচ করে, সেটি প্যাডল সুইপ করেন মুশফিক। কিন্তু ব্যাটে খেলতে পারেননি। বাঁহাতি স্পিনারের বল হালকা সুইং করে ভেঙে দেয় স্টাম্প। ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরি করা মুশফিক থামলেন ১০৫ রান করে। ২৮২ বল স্থায়ী ইনিংসে চার মাত্র ৪টি।

খানিক পর একই পথ ধরেন নাঈম। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার অফ স্টাম্পে পিচ করা বাড়তি লাফিয়ে ওঠা বল ঠেকানোর চেষ্টা করেন এই ডানহাতি। ব্যাটে লেগে সহজ ক্যাচ যায় শর্ট লেগে কুসল মেন্ডিসের হাতে। ৫৩ বলে ৯ রান করে বিদায় নেন নাঈম। তাইজুল ইসলাম প্রতিরোধ গড়ায় চেষ্টা করলেও সফল হননি। তার ইনিংস কাটা পড়ে ২০ রানে, অসিথা উঠিয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।

শেষ জুটিতে রান কিছুটা বাড়িয়ে নিতে চেষ্টা করছিলেন শরিফুল আর খালেদ আহমেদ। তবে ইনিংসের ১৭১তম ওভারে হাতের আঘাতে বাধ্য হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় শরিফুলকে। এতে আর কোনো ব্যাটসম্যান অবিশিষ্ট না থাকায় ৪৬৫ রানে ইনিংস ঘোষণা করতে বাধ্য হয় বাংলাদেশ দল। তাতে প্রথম সেশন শেষে ৬৮ রানের লিড জমা হয়েছে।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...