ইংল্যান্ডের পর অস্ট্রেলিয়া শিবিরেও করোনার হানা

অ্যাশেজের প্রথম ৩ ম্যাচ জিতে শিরোপায় নিজেদের নাম লিখিয়ে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া। তবে এখনও ২টি ম্যাচ বাকি থাকলেও তা নিয়ে তৈরি হয়েছে শঙ্কা। কারণ চলমান সিরিজে বেশ ভালোভাবেই আঘাত হেনেছে মরণব্যাধি করোনা ভাইরাস।

ইংল্যান্ডের শিবিরে করোনার খবর পাওয়া গেলেও তৃতীয় টেস্টটি মাঠে গড়িয়েছিল। এবার করোনা হানা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ড্রেসিংরুমেও। পজিটিভ এসেছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ট্রাভিস হেড। যেকারণে বিলম্বিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া দলের মেলবোর্ন থেকে সিডনির ফ্লাইট। শুক্রবার সকালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, রুটিন টেস্টে হেডের করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর। তার মধ্যে কোনো উপসর্গ নেই।

মেলবোর্নে সাতদিনের আইসোলেশনে থাকবেন এই ক্রিকেটার। এদিকে দলে আরও করোনার শঙ্কায় মিচেল মার্শ, নিক ম্যাডিসন এবং জশ ইংলিশকে স্কোয়াডে যোগ করেছে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ড আলাদা বিমানে করে সিডনিতে যাচ্ছে। তাদের দলের সঙ্গে নেই কোচ ক্রিস সিলভারউড। তার পরিবারের একজন করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। অর্থাৎ সিডনি টেস্ট মাঠে গড়ালে কোচ ছাড়াই খেলতে হবে ইংল্যান্ডকে।

সব মিলিয়ে ইংলিশ শিবিরে সাতজন করোনার আক্রমণে পড়েছেন। তার মধ্যে তিনজন সাপোর্ট স্টাফ, চারজন পরিবারের সদস্য। যদিও গত ২৪ ঘণ্টায় ইংলিশ ক্রিকেটারদের সবাই করোনা নেগেটিভ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার করোনার থাবা পড়েছে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ বিগ ব্যাশেও। স্থগিত হয়ে গিয়েছে মেলবোর্ন স্টার্স ও পার্থ স্কোরসার্চের ম্যাচ। পজিটিভ এসেছেন স্টার্স সাপোর্ট স্টাফের একজন। এরপর শুক্রবার খবর আসে সিডিনি থান্ডারের ৪ ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...