টেস্ট ক্রিকেট থেকে ডি ককের অবসর

টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন কুইন্টন ডি কক। সাদা পোশাকের ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৩৮.৮২ গড়ে ৫৪ ম্যাচে ৩ হাজার ৩০০ রান করেছেন তিনি। এর মধ্যে ৬টি সেঞ্চুরি ও ২২টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে তার।

মাত্র ২৯ বছর বয়সে ক্রিকেটের সবচেয়ে রাজসিক এই ফরম্যাট থেকে অবসর সবাইকে অবাক করেছে। ভারতের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১১৩ রানের ব্যবধানে হেরেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এই ম্যাচে হারের পরই ডি ককের এমন সিদ্ধান্ত।

২০১৪ সালে পোর্ট এলিজাবেধে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল এই উইকেটরক্ষক ব্যাটারের। দারুণ ব্যাটিংয়ের সঙ্গে উইকেটের পেছনেও দারুণ সাবলীল ছিলেন তিনি। উইকেটরক্ষক হিসেবে ২৩২টি ডিসমিসালের মালিক তিনি। এর মধ্যে ২২১টি ক্যাচ ও ১১টি স্টাম্পিং রয়েছে তার।

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে তৃতীয় সর্বোচ্চ ক্যাচের মালিক তিনি। ১১ ম্যাচে তিনি ৪৮টি ক্যাচ নিয়েছেন। এর মধ্যে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬টি ডিসমিসাল করেছেন তিনি। ২০১৯ সালে সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে এমন কীর্তি গড়েছিলেন তিনি।

২০২১ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার ভারপ্রান্ত অধিনায়কের দায়িত্ব পান ডি কক। টেস্ট থেকে অবসর নিলেও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। বিদায় বেলায় ডি কক বলেছেন, ‘এটা এমন কোনো সিদ্ধান্ত ছিল না যেটা সহজে নেয়া যায়। আমি অনেক চিন্তা করেছি আমার ভবিষ্যৎ কেমন হতে পারে এবং জীবনে আমি কোন জিনিসটাকে সবচেয়ে গুরুত্ব দেব এটা নিয়ে ভেবেছি। কারণ আমি এবং শাশা (স্ত্রী) আমাদের প্রথম সন্তানের জন্য অপেক্ষা করছি।’

নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে এই প্রোটিয়া ক্রিকেটার আরও বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে পরিবার সবকিছুর ঊর্ধে। আমার পরিবার আমার কাছে সবকিছু এবং আমার এজন্য সময় প্রয়োজন। জীবনের এই নতুন অধ্যায়ে তাদের সঙ্গে থাকা প্রয়োজন।’

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...