ডিএসইর ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লেনদেন, বাজার মূলধনেও রেকর্ড

কোভিড ১৯ মহামারির কারণে বিশ্বব্যাপি স্টক মার্কেটের গতি মন্থর থাকলেও বাংলাদেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ প্রতিটি ক্ষেত্রেই সাফল্যের মাইলফলক সৃস্টি করে৷ বিদায়ী বছরে লেনদেনেও ইতিহাস গড়েছে ডিএসই। গত বছরে ডিএসইতে ১৬২.৩০ শতাংশ লেনদেন বেড়ে ৩৫৪,০৫২ কোটি ৮৬ লাখ টাকায় উন্নীত হয়৷ যা ডিএসই’র ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লেনদেন। আলোচ্য বছরে বাজার মূলধনেও রয়েছে নতুন রেকর্ড।

২০২১ সালে ডিএসইতে মোট ২৪০ কার্যদিবস লেনদেন হয়৷ এতে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৫৪,০৫২ কোটি ৮৬ লাখ টাকা৷ অপরদিকে ২০২০ সালে ২০৮ কার্যদিবসে মোট লেনদেনের পরিমান ছিল ১৩৪,৯৮১ কোটি ২২ লাখ টাকা এবং গড়ে লেনদেনের পরিমান ছিল ৬৪৮ কোটি ৯৫ লাখ টাকা৷

এই হিসাবে ডিএসইতে গতবছরের চেয়ে ২১৯,০৭১ কোটি ৬৪ লাখ টাকা বা ১৬২.৩০ শতাংশ বেশী লেনদেন হয়েছে। বিদয়ী বছরে ডিএসইতে গড় লেনদেন ছিল ১৪৭৫ কোটি ২২ লাখ টাকা৷

বাজার মূলধন

২০২১ সালে বাজার মূলধন ডিএসই’র ইতিহাসে সর্বোচ্চ পর্যায়ে উন্নীত হয়েছে৷ ডিএসই বাজার মূলধন আগের বছরের তুলনায় ৯৩ হাজার ৯৬৬ কোটি টাকা বা ২০.৯৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। আলোচ্য বছরে ডিএসইর বাজার ‍মূলধন  ৫ লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়৷

২০২১ সালে বাজার মূলধন সর্বোচ্চ ৫ লাখ ৮৬ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয় এবং সর্বনিম্ন ছিল ৪ লাখ ৪৩ হাজার কোটি৷

অর্থসূচক/এসএ/

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...