বৃষ্টি আর যানজটে চরম দুর্ভোগে রাজধানীবাসী

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে ঢাকায় গতকাল থেকে ঝরছে বৃষ্টি। অগ্রহায়ণের এই বৃষ্টিতে দুর্ভোগে পড়েছেন রাজধানীবাসী। বৃষ্টির সঙ্গে সড়কে যানজট দেখা দেওয়ায় দুর্ভোগের এই মাত্রা চরম আকার ধারণ করেছে। তারপরও ভোগান্তি উপেক্ষা করে নিজ নিজ কর্মস্থলে যাচ্ছেন রাজধানীবাসী।

গতকাল রোববার ঢাকায় প্রায় সারাদিনই বৃষ্টি ঝরেছে। কখনো গুঁড়ি গুঁড়ি আবারও কখনো হালকা বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি পড়েছে সারারাতেও, যার ধারা আজ অবধি রয়েছে। সোমবার সারাদিন বৃষ্টি হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বৃষ্টির কারণে অফিসগামী মানুষ বিড়ম্বনায় পড়েছেন। অনেকে রেইনকোট ও ছাতা মাথায় গন্তব্যস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। বৃষ্টি থেকে অনেকে শরীরের উপরিভাগ রক্ষা করতে পারলেও শরীরের নিচের বাঁচাতে পারেছেন না। কাদা আর পানিতে নিচের অংশ ভিজে একাকার হয়ে গেছে। সকাল থেকে আকাশ অন্ধকারাচ্ছন্ন থাকায় হেডলাইট জ্বালিয়ে অনেক গাড়িকে চলতে দেখা গেছে।

গণপরিবহনের পাশাপাশি রিকশা সংকট দেখা দেওয়ায় অনেকেরই অফিসযাত্রা বিলম্বিত ও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আর এই সুযোগে যেসব রিকশা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলছে সেগুলোও ভাড়া আদায় করা হচ্ছে ইচ্ছেমতো। সকালে সড়কে যানবাহনের সংখ্যা কম থাকলেও সময় বাড়ার পর গাড়ির চাপ বেড়েছে। অনেক সিগন্যালে পরিবহনগুলো দীর্ঘ সময় যানজটে পড়ে থাকায় পায়ে হেঁটে যাত্রীরা গন্তব্যস্থলে রওনা হয়েছেন।

রাজধানীর মগবাজার ওয়্যারলেস গেট, ফার্মগেট, বাংলামোটর, শাহবাগ, জাতীয় প্রেসক্লাব ও পল্টন এলাকায় অনেক অফিসগামী মানুষকে পরিবহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে ঢাকার মতো দেশের অনেক স্থানেও বৃষ্টি হচ্ছে। রাজধানীতে সারাদিন মাঝারি বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিসের সারাদেশের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় ও রংপুর বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...