শরীয়াহভিত্তিক ‘সিটি ইসলামিক’ সেবা চালু করেছে সিটি ব্যাংক

সিটি ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য পরিপূর্ণ শরীয়াহ ও উন্নত প্রযুক্তিসম্পন্ন ইসলামি ব্যাংকিং সেবা ‘সিটি ইসলামিক’ চালু করেছে। এখন থেকে সিটি ব্যাংকের গ্রাহকরা সারা দেশের সব শাখা, উপশাখা, সিটিজেম ও এসএমই সেন্টার থেকে প্রচলিত ব্যাংকিংয়ের পাশাপাশি আধুনিক ইসলামি ব্যাংকিং সেবা পাবেন। এতদিন স্বল্প পরিসরে পরিচালিত হয়ে আসা ‘সিটি মানারাহ’কে আধুনিক রূপ দিতে এই সেবা নিয়ে এসেছে সিটি ব্যাংক।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে সিটি ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য নতুন রূপে ‘সিটি ইসলামিক’ সেবার উদ্বোধন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকটির চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার, ভাইস চেয়ারম্যান হোসেন খালেদ, শরীয়া সুপারভাইজারি কমিটির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসাইন মোল্লা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মাসরুর আরেফিন, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মারুফ।

অনুষ্ঠানে ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসরুর আরেফিন বলেন, ‘সিটি ব্যাংকের গ্রাহকেরা এখন থেকে দেশব্যাপী প্রায় ১৩২টি শাখা, ৪০০ এটিএম সিটিজেম ও এসএমই সেন্টারগুলোতে প্রচলিত ব্যাংকিংয়ের পাশাপাশি পরিপূর্ণ শরীয়াহ ও উন্নত প্রযুক্তি সম্পন্ন ইসলামি ব্যাংকিং সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। শুধু তাই নয় সিটি ব্যাংকের বিশ্বমানের ডিজিটাল ব্যাংকিং অ্যাপ সিটিটাচের মাধ্যমেও গ্রাহকরা ইসলামী ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘পাশাপাশি আমরা সিটি ইসলামিক গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এসেছি দেশের প্রথম আমেরিকান এক্সপ্রেস ইসলামিক ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ড।’

মাসরুর আরেফিন আরো বলেন, ‘সিটি ইসলামিক গ্রাহকদের জন্য রয়েছে শরীয়াহ ভিত্তিক সব ধরনের ডিপোজিট ও বিনিয়োগ সুবিধা। সুদবিহীন মুনাফা বন্টন নিশ্চিত করার জন্য সিটি ইসলামিক গ্রাহকদের মাঝে ইনভেস্টমেন্ট ইনকাম শেয়ারিং রেশিও পদ্ধতিতে মুনাফা প্রদান করা হবে। অন্য ব্যাংকের মতো সিটি ইসলামিক ডিপোজিট গ্রাহকদের জন্য পূর্বনির্ধারিত মুনাফার হার ঘোষণা করে না। এই সিটি ইসলামিক ব্যাংকিং সিস্টেমে গ্রাহকরা তাদের ইসলামিক বিশ্বাসের সাথে সামঞ্জস্য রেখে প্রাত্যহিক জীবনের ব্যাংকিং প্রয়োজন মেটাতে পার্সোনাল ব্যাংকিং থেকে শুরু করে কর্পোরেট ব্যাংকিং সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন।’

ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার বলেন, ‘অর্থনীতিতে এখন ইসলামিক ব্যাংকিংয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। তাই গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করে পূর্ণাঙ্গভাবে শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা দানের লক্ষ্যে আমরা ‘সিটি ইসলামিক’ সেবা চালু করলাম।’

তিনি বলেন, ‘২০০৩ সালে আমরা ‘সিটি মানারাহ’ ইসলামি ব্যাংকিং সেবা চালু করেছিলাম; সেটা ছিল স্বল্প পরিসরে। আজ আমরা আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন পরিপূর্ণ ইসলামিক ব্যাংকিং সেবা ‘সিটি ইসলামিক’ চালু করলাম। এর মাধ্যমে আমাদের সারা দেশের গ্রাহক ইসলামী ব্যাংকিং সেবা পাবেন।’দেশের অধিকাংশ গ্রাহকের হাতে হাজার হাজার টাকা রয়েছে। তারা কেবলমাত্র ইসলামী ব্যাংকিংয়েই সেই টাকা বিনিয়োগ করতে চান।

তিনি আরো বলেন, দেশের এক তৃতীয়াংশ ব্যাংকিং হয় ইসলামী ব্যাংকিংয়ে। ৫০ শতাংশ রেমিট্যান্স আসে ইসলামি ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। তারা আমরা গ্রাহকদেরকে উন্নত সেবা দিতেই এই ‘সিটি ইসলামিক’ সেবা চালু করেছি।

অর্থসূচক/এমএস/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...