নটরডেমের শিক্ষার্থী নিহত: গাড়িচালক গ্রেপ্তার

রাজধানীর গুলিস্তানে রাস্তা পারাপারের সময় নটরডেম কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থীকে নাঈম হাসানকে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির চালক মো. হারুনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করে পল্টন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহউদ্দিন মিয়া বলেন, গতকাল (বুধবার) রাতে নিহত শিক্ষার্থীর বাবা শাহ আলম বাদী হয় সড়ক ও পরিবহন আইনে মামলা করেছেন। ওই মামলায় গাড়িচালক হারুনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। আজ দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করে সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

মতিঝিল জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আহাদ হোসেন বলেন, ঘটনার দিন হারুনের সায়েদাবাদ থেকে গাড়ি নিয়ে বের হওয়ার কথা থাকলেও তিনি তা না করে হেলপার দিয়ে গাড়িটি বের করেন। হারুন গাড়ি চালক হলেও হেলপার দিয়ে গাড়ি বের করায় আইনানুগ অপরাধ করেছেন। মূলত এ কারণেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ বিষয়ে দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

এদিকে, গাড়িচাপায় নটরডেম কলেজ শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে মতিঝিল শাপলা চত্বরে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছেন তারা। তারা বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড নিয়ে রাজউক ভবনের দিকে অগ্রসর হন। সেখান থেকে তারা গুলিস্তানে গিয়ে সমাবেশ করবেন বলে জানান।

এ সময় তারা, ‘আমার ভাই মরলো কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আমরা বিচার চাই’ ‘নিরাপদ সড়ক চাই’-সহ নানা ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন।

এর আগে গতকাল বুধবার রাজধানীর গুলিস্তানে রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় শিক্ষার্থী নাঈম হাসান (১৮) হাসান নিহত হন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। পরে দুপুর সোয়া ১২টার দিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটিও জব্দ করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলার বাদী হয়েছেন নিহতের বাবা শাহ আলম।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •