লন্ডন থেকে অস্ত্র কেনার প্রস্তাবে সম্মতি দেয়নি বাংলাদেশ

লন্ডন থেকে অস্ত্র কেনার প্রস্তাব দেওয়া হলেও তাতে সম্মতি দেয়নি বাংলাদেশ। রবিবার এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন এ কথা বলেন।

যুক্তরাজ্য পাঁচটি যুদ্ধজাহাজ কেনার প্রস্তাব দিয়েছিল জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রস্তাবে ছিল—দুটি আমাদের দেশে বানানো হবে এবং বাকিগুলো তাদের দেশে বানাবে। দ্বিতীয়ত, তারা আমাদের ডক-ইয়ার্ডও উন্নত করবে।

তিনি বলেন, আমরা বলেছি বিষয়টি দেখবো। এখনও সম্মতি দিইনি। অন্য যে প্রস্তাবগুলো আছে সেগুলোও পরে দেখবো বলে জানিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনেকের বৈঠক হয়েছে এবং তিনি সবাইকে বলেছেন বাংলাদেশের অগ্রাধিকার হচ্ছে অর্থনৈতিক উন্নয়ন, খাদ্য, শিক্ষা ও জীবনের মানোয়ন্নন।

এর আগে ৫ নভেম্বর পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন ও যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাইদা মোনা তাসনিমের উপস্থিতিতে বলেছিলেন, ‘যুক্তরাজ্য বাংলাদেশে ন্যাভাল ফোর্সের কিছু জাহাজ পাঠাতে চায়। এটার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পরে হবে। আমরা নীতিগতভাবে সম্মত যে পাঁচটা নেবো। এর মধ্যে তিনটা তারা তৈরি করবে, দুটো আমরা করবো। আমাদের জাহাজ বানানোর ডক উন্নয়নের কাজ তারা করবে।’

ফ্রান্স সফর

ফ্রান্সের অনেক বড় বড় কোম্পানির প্রতিনিধিরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একটি স্যাটেলাইট এর আগে তাদের কাছ থেকে কেনা হয়েছিল। তারা আরেকটি বিক্রি করতে চায়।

তিনি আরও বলেন, তারা রাডার বিক্রিতেও আগ্রহী। এর আগে তারা রাডার সিস্টেম বিক্রি করেছে। এগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া, এয়ারবাসের প্রতিনিধি দেখা করে বলেছেন— ‘আপনারা বোয়িং নিয়েছেন, এবার আমাদের কাছ থেকে নিন।’

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •