বৃষ্টি থাকবে আরও দুইদিন

বাংলাদেশের আকাশে পূবালি ও পশ্চিমা বায়ুর সংমিশ্রণ ঘটেছে। এর প্রভাবে রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় হালকা বৃষ্টি হতে পারে। আগামী আরও দুইদিন এই আবহাওয়া থাকতে পারে। দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি কমতে পারে।

গতকাল শুক্রবার থেকেই হালকা কুয়াশায় ছেয়ে যায় ঢাকার আকাশ। কোথাও কোথাও হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিও হয়। এর প্রভাবে রাতে কমে আসে তাপমাত্রা। মধ্যরাতের পর দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রিতে নেমে যায়। একইসাথে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি পড়ছে ভোর থেকে। আজ শনিবার (১৩ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত এমন আবহাওয়া বিরাজ ছিল। আজ সারাদিন আবহাওয়া এমন থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, পূবালি ও পশ্চিমা বায়ুর সংমিশ্রণে এই আবহাওয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাবে আগামী কয়েকদিন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় হাল্কা বৃষ্টি হতে পারে। আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত এই বৃষ্টি থাকতে পারে।

এদিকে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার জন্য দেওয়া আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা থাকতে পারে। হালকা বৃষ্টি বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া উত্তর বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৫ থেকে ১০ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, দক্ষিণপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও আশেপাশের এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি দুর্বল হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে সরে গিয়ে প্রথমে সুস্পষ্ট লঘুচাপ এবং পরে লঘুচাপ হিসেবে উদ্ভন্ন তামিলনাড়ু ও এর আশেপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। এটি গুরুত্বহীন হয়ে যেতে পারে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তং এলাকায় অবস্থান করছে। স্বাভাবিক মৌসুমী লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এদিকে পূবালি ও পশ্চিমা বায়ুর সংমিশ্রণের প্রভাবে রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় থাকা বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যর অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।

অর্থসূচক/এমএস