স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ইফাদ কারখানা পরিদর্শন

দেশের অন্যতম বৃহৎ অটোমোবাইল কোম্পানি ইফাদ অটোস লিমিটেড এর কারখানা পরিদর্শন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। আজ রোববার (৩১ অক্টোবর) ধামরাইয়ের বাথুলী এলাকায় ইফাদ অটোস লিমিটেড কারখানা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে একথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইফাদ অটোস ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পার্কের বিভিন্ন ইউনিট ঘুরে দেখেন। আধুনিক প্রযুক্তি সুবিধা সম্বলিত গাড়ি সংযোজন এবং এসি, নন -এসি বাসের বডি ও ট্রাকের কেবিন প্রস্তুত কারখানার কার্যক্রমের মাধ্যমে কর্মসংস্থান এবং জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখায় তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে ইফাদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ টিপু জানান, বেসরকারী উদ্যোগে বাংলাদেশে নব দিগন্তের সূচনা করেছে ইফাদ অটোস লিমিটেড। বেশ কয়েক বছর যাবত এই কারখানায় বিভিন্ন ধরনের গাড়ি সংযোজন করা হচ্ছে। চলতি বছরের শুরুর দিক থেকে বিলাসবহুল এসি, নন-এসি বাসের বডি তৈরী করা হচ্ছে। তিনি জানান, বর্তমানে বিদেশ থেকে গাড়ি আমদানী করতে বেশ সময় লাগে। এই কারখানা চালু হওয়ার ফলে ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী দ্রুততম সময়ে গাড়ি সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে।

ইফতেখার আহমেদ টিপু বলেন, বাংলাদেশে বিগত কয়েক বছরে ভারী যানবাহনের ক্ষেত্রে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে আমদানীকৃত গাড়িতে আমদানী বাবদ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ইফাদ অটোস লিমিটেড বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় ও দেশে শিল্প বান্ধব অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে এই কারখানা স্থাপন করেছে। গাড়ি সংযোজন এবং বডি তৈরীর ফলে একদিকে যেমন বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে। অন্যদিকে, দেশের অনেক ছোট ছোট বিশেষায়িত কারখানায় তাদের উৎপাদিত মানসম্পন্ন বিভিন্ন পণ্য এই সংযোজন কারখানায় সরবরাহের দ্বার উন্মোচন হয়েছে।

উল্লেখ্য, বছরে ১০ হাজার গাড়ি সংযোজনের লক্ষ্য নিয়ে ২০১৭ সালে ইফাদ অটোস লিমিটেড ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে ধামরাইয়ে স্থাপন করে বেসরকারি উদ্যোগে দেশের সর্ববৃহৎ গাড়ী সংযোজন ও এসি, নন-এসি বাস-ট্রাকের কেবিন প্রস্তুত কারখানা। বিশ্ব বিখ্যাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভারতের অশোক লেল্যান্ডের কারিগরি সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত এই কারখানায় গাড়ি সংযোজন এবং আধুনিক ও বিশ্বমানের এসি, নন-এসি লাক্সারী বাস ও ট্রাকের কেবিন তৈরী হচ্ছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা-২০ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বেনজির আহমেদ এবং ইফাদ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।