ইন্দোনেশিয়ায় অক্সিজেন সিলিন্ডার পাল্টাতে দেরি, ৬৩ করোনা রোগীর মৃত্যু

ইন্দোনেশিয়ার একটি হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটে ৬৩ জন কোভিড রোগী মারা গেছেন। রোববার (০৪ জুলাই) ডক্টর সারদজিতো জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজ জানিয়েছে, ইয়গ্যাকার্তা শহরের ড. সারদজিতো জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের ইউনিটে তরল অক্সিজেন সরবরাহের কেন্দ্রীয় ব্যবস্থা হঠাৎ করে বন্ধ হয়ে যায়। এতে তাৎক্ষণিকভাবে ৩৩ জন করোনা রোগীর মৃত্যুর কথা গণমাধ্যমে প্রকাশ হলেও রোববারের প্রতিবেদনে অক্সিজেন সংকটে মৃত রোগীর সংখ্যা ৬৩ বলে জানায় ভয়েস অব আমেরিকা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর স্বাস্থ্যকর্মীরা সিলিন্ডারের মাধ্যমে করোনা রোগীদের শ্বাস-প্রশ্বাস চালু রাখার চেষ্টা করেন। এরপরও ৬৩ জনকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ইয়গ্যাকার্তা শহরসহ ইন্দোনেশিয়ার সব অঞ্চলেই করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে।

ভয়েস অব আমেরিকা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, অক্সিজেন সংকট কাটানোর জন্য হাসপাতালের কর্মীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার বদলানোর চেষ্টা করেন। তবে তারা ৬৩ জন রোগীর জীবন বাঁচাতে ব্যর্থ হন।

এক বিবৃতিতে হাসপাতালের পরিচালক রুকমন সিস্বিশান্ত বলেন, হাসপাতালে ইয়গ্যাকার্তা আঞ্চলিক পুলিশের দেওয়া ১০০ সিলিন্ডারসহ আরও কিছু অক্সিজেন সিলিন্ডার বদলানোর চেষ্টা চলছিল। তবে শেষ পর্যন্ত দেরি হয়ে যায়।

সাম্প্রতিক সময়ে ইয়গ্যাকার্তা শহরসহ ইন্দোনেশিয়া জুড়েই করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কারণে হাসপাতালগুলো জরুরি ভিত্তিতে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) এবং কোয়ারেন্টিন সেন্টার তৈরি করতে বাধ্য হচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

পরিসংখ্যান ভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস জানায়, ইন্দোনেশিয়ার সোমবার (০৫ জুলাই) সকাল পর্যন্ত ২২ লাখ ৮৪ হাজার ৮৪ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। মারা গেছে ৬০ হাজার ৫৮২ জন।

অর্থসূচক/কেএসআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...