ফ্লোরিডায় ভবন ধসে একজনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৯৯

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের মায়ামিতে একটি ১২ তলা আবাসিক ভবন ধসে পড়ার ঘটনায় অন্তত একজন নিহত এবং ৯৯ জন নিখোঁজ রয়েছেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) অঙ্গরাজ্যটির মায়ামির পার্শ্ববর্তী সার্ফসাইড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কর্মকর্তারা বলছেন, উদ্ধার তৎপরতা চলছে। কর্মীরা প্রাণপণ চেষ্টা করছেন মানুষকে জীবিত উদ্ধার করতে। অনেকেই নিচে আটকে আছেন।

যে ভবনটি ধসে গেছে সেটি আবাসিক ভবন; যারা নিখোঁজ রয়েছেন তাদের মধ্যে কমপক্ষে ১৮ জন লাতিন আমেরিকার বিভিন্ন দেশের নাগরিক।

মায়ামি-ডাড কাউন্টির মেয়র ড্যানিয়েল লেভিন-কাভা জানিয়েছেন, ভবনটিতে যারা অবস্থান করছিলেন সেই সংখ্যা তাদের হিসাব মতে ১০২ জন এবং এখনও ৯৯ জনের কোনও খোঁজ মেলেনি।

তবে ধসের মুহূর্তে বহুতল ওই ভবনটিতে আসলে ঠিক কতো মানুষ ভেতরে ছিল – সেটি পরিষ্কার নয়। ভবনটি ধসে পড়ায় ওই কমপ্লেক্সের ১৩০টি ইউনিটের অর্ধেক তছনছ হয়ে গেছে।

সার্ফসাইড শহরে এই ভবনটি নির্মিত হয়েছিল ১৯৮০ সালে। ৪০ বছরের এই পুরনো ভবনটি কেন ধসে পড়েছে তা জানা যায়নি। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

প্যারাগুয়ের ফার্স্ট লেডির এক স্বজনও নিখোঁজদের মধ্যে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। উদ্ধারকারীরা ফার্স্টলেডি সিলভানা লোপেজ মোরেইরার বোন, বোনের স্বামী, তাদের তিন সন্তান ও গৃহকর্মী কারও সাথেই যোগাযোগ করতে পারছেন না।

উদ্ধারকারীরা ৩৫ জনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে টেনে তুলেছে বলে, কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। দশজনকে পর্যবেক্ষণ ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উদ্ধারকারী ও তল্লাশি দলগুলো ধ্বংসস্তূপের নীচে চাপা পড়া একটি পার্কিং গ্যারেজ থেকে উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। কারণ তারা ধ্বংসাবশেষের নীচে বেঁচে থাকা মানুষের সন্ধান পেয়েছেন।

ভেঙে পড়া ভবন থেকে কয়েক ব্লক দূরে একটি কমিউনিটি সেন্টারে নিখোঁজদের স্বজনরা জড়ো হয়ে অপেক্ষা করছেন তাদের প্রিয়জনের অবস্থা জানার জন্য। তবে তাদের কাছে আরও খারাপ খবর আসার আশঙ্কাই বেশি।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, তিনি অপেক্ষা করছেন যে কখন গভর্নর ডিসান্টিস জরুরি অবস্থা ঘোষণা করবেন। বাইডেন বলেন, আমি ফ্লোরিডার জনগণকে বলছি, কেন্দ্রীয় সরকার দিতে পারে এমন সব সহায়তা আপনারা চাইতে পারেন, আমরা অপেক্ষা করছি, কেবল আমাদের জানান। আমরা সেখানে থাকব।

সূত্র: বিবিসি।

অর্থসূচক/কেএসআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...