বিএসএমএমইউ’তে প্রথম দিন ফাইজারের টিকা নিলেন ৮৪ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
88

কোভ্যাক্স থেকে পাওয়া ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের মাধ্যমে আবারও শুরু হয়েছে করোনাভাইরাসের প্রথম ডোজের টিকাদান কর্মসূচি। এতে অংশ নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ফাইজারের টিকা নিয়েছেন ৮৪ জন।

সোমবার (২১ জুন) রাজধানী ঢাকার তিনটি হাসপাতালে ফাইজারের এই টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।

বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। তিনি বলেন, ‘যারা সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করেও এখনও পর্যন্ত এক ডোজও টিকা নিতে পারেননি, তারাই এই টিকা নিতে পারবেন। সোমবার যারা টিকা নিয়েছেন, তারা কয়েকদিন পর্যবেক্ষণে থাকবেন।’

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘ভ্যাকসিন নেওয়ার পাশাপাশি  করোনা প্রতিরোধে অবশ্যই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা ও প্রয়োজন মতো হাত ধুতে হবে।’

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কনভেনশন হলে গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৫৪ হাজার ৫৬৪ জন।

এরপর আজ সোমবার থেকে আবারও শুরু হলো ফাইজারের প্রথম ডোজের টিকাদান কার্যক্রম।

রবিবার (২০ জুন) স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক বলেন, ‘পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখার জন্য ৭ থেকে ১০ দিন প্রত্যেককে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।’

গত ৩১ মে মার্কিন ওষুধ কোম্পানি ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি কোম্পানি বায়োএনটেকের তৈরি এক লাখ ৬২০ ডোজ টিকা আসে বাংলাদেশে।

এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিয়ে করোনা টিকার প্রথম পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হয় রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে। পরে ৭ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে জাতীয়ভাবে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৯ জুন থেকে দেওয়া হচ্ছে চীনের সিনোফার্মের টিকা।

অর্থসূচক/এমএস