‘দাড়ি নয়, দেশে কর্মসংস্থান বাড়ান’, প্রধানমন্ত্রীকে নাপিত খরচের টাকা পাঠিয়ে পরামর্শ চাওয়ালার

0
146

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Modi) দাড়ি কাটার জন্য ১০০ টাকা মানি অর্ডার করেছেন মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) এক চা বিক্রেতা। মোদির দাড়ি ক্রমাগত বড় হতে থাকায় তা কেটে ছোট করার জন্য নাপিত খরচ হিসেবে এ টাকা পাঠিয়েছেন তিনি।

অনিল মোরে নামের ওই চা বিক্রেতার বক্তব্য, মোদির দাড়ি দিন দিন বড় হচ্ছে। কিন্তু যদি প্রধানমন্ত্রী কিছু বাড়াতেই চান তাহলে দাড়ি নয়, দেশে কাজের সুযোগ বৃদ্ধি করুন। করোনা টিকার (COVID vaccine) হার বাড়ান।

খবর সংবাদ প্রতিদিনের

মহারাষ্ট্রের বারামাটির বাসিন্দা ওই চা ইন্দ্রপুর রোডে এক বেসরকারি হাসপাতালের উলটো দিকে ছোটখাটো একটি চায়ের দোকান চালান। অনিল বারবার জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীকে অসম্মান করার কোনও অভিপ্রায় থেকে এই কাজ তিনি করেননি।

তাহল ঠিক কী দাবি অনিলের? কেন একাজ করলেন তিনি? তাঁর কথায়, ‘‘প্রধানমন্ত্রী নিজের দাড়ি বাড়াচ্ছেন। যদি কিছু বাড়াতেই হয় তাহলে সেটা হওয়া উচিত দেশের কর্মসংস্থান। পাশাপাশি দেশে টিকাকরণের গতি বাড়ানো হোক। বাড়ানো হোক হাসপাতালের সংখ্যা। গত দুটো লকডাউনের ফলে সাধারণ মানুষকে যে দুর্দশার মধ্যে পড়তে হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর উচিত যাতে মানুষ এটা থেকে বেরিয়ে আসতে পারে সে চেষ্টা করা।’’

অনিল পরিষ্কার জানিয়েছেন, দেশে প্রধানমন্ত্রীর স্থানই যে সর্বোচ্চ তা ভাল করেই জানেন তিনি। তাঁর মতে, ‘‘আমি ওঁকে একশো টাকা পাঠিয়েছি, যাতে উনি নিজের দাড়িটা কেটে ফেলেন। কিন্তু উনি আমাদের মহান নেতা। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা ও আস্থা রয়েছে। ওঁর অবমাননা করার কোনও ইচ্ছাই আমার নেই। কিন্তু যেভাবে অতিমারীর কবলে পড়ে দিনের পর দিন দেশের গরিবদের সমস্যা বেড়েই চলেছে, তাতে এভাবে ওঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করা ছাড়া উপায় ছিল না।’’

স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, তাঁর চিঠিতে মোদির কাছে অনিল আরজি জানিয়েছেন, যাঁরা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন তাঁদের পরিবারগুলিকে ৫ লক্ষ টাকা করে সাহায্য করুক কেন্দ্র। সেই সঙ্গে লকডাউনে বিধ্বস্ত পরিবারগুলিকেও দেওয়া হোক ৩০ হাজার টাকা।