প্রত্যাশার থেকেও বেশি টাকা চুরি, আনন্দে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চোর

অর্থসূচক ডেস্ক

0
152

দুই চোর মিলে টাকা চুরি করেছিল। কিন্তু চুরির পরই তাদের নজরে আসে যে পরিমাণ টাকা তারা চুরি করবে ভেবেছিল, তার থেকে অনেক বেশি হাতিয়ে ফেলেছে। আর এই দেখেই শেষপর্যন্ত আনন্দে আত্মহারা হয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হল এক চোর। আর চিকিৎসার পিছনেই খরচ হল চুরির বেশিরভাগ টাকা।

শুনতে হাস্যকর মনে হলেও, এমনটাই ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বিজনৌরে। সম্প্রতি পুলিশের জালে ধরা পড়ে নাগিনা পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত আলিপুরের বাসিন্দা দুই চোর নওশাদ এবং আজাজ। সেখানেই তারা গোটা ঘটনাটি স্বীকার করে নেয়।

ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা যায়, গত ১৬ এবং ১৭ ফেব্রুয়ারি নবাব হায়দার নামে এক ব্যক্তির মালিকানাধীন পাবলিক সেক্টর সেন্টারে চুরি করতে ঢোকে ওই দুই চোর। ওই সেন্টারে তখন সাত লক্ষ টাকা ছিল। পুরোটাই চুরি করে নেয় দুজনে। তবে তারা ভেবেছিল হয়তো কয়েক হাজার টাকা পাওয়া যাবে। কিন্তু শেষপর্যন্ত অত টাকা দেখে স্বভাবতই আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়ে ওই চোররা। তখনই একজন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়।

এই প্রসঙ্গে বিজনৌরের এসপি ধরমবীর সিং বলেন, ধৃতরা এর আগেও বহুবার চুরি করেছে। বিভিন্ন পুলিশ স্টেশনে ওদের নামে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। দুজনেই ওই পাবলিক সার্ভিস সেন্টারে চুরির কথা স্বীকার করে নিয়েছে। আলমারি থেকে দামী জিনিস এবং সাত লক্ষ টাকা হাতায় দুজনে। এরপর নিজেদের মধ্যে দুভাগে ভাগও করে নেয় তারা।

কিন্তু এরপরই ঘটে বিপত্তি। আজাজ নামে এক চোর আনন্দে আত্মহারা হয়ে যায়। এরপরই হৃদরোগে আক্রান্ত হয় সে। পরবর্তীতে এক বেসরকারি হাসপাতালে তার চিকিৎসা হয়। তাতেই চুরির টাকার অধিকাংশটা শেষ হয়ে যায়। ওই চোরের নামে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান এসপি ধরমবীর সিং।

অর্থসূচক/কেএসআর