উইকেটের ভুতুড়ে আচরণে ২ দিনেই জিতল ভারত

0
106

গোলাপি বলের সঙ্গে উইকেটের ভুতুড়ে আচরণ। পুরোপুরি দুই দিনও গেল না ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার তৃতীয় টেস্ট! মাত্র ৪৯ রানের লক্ষ্যে ১০ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ভারত। আহমেদাবাদ টেস্ট জিতে ৪ ম্যাচ সিরিজে এখন ২-১ এ এগিয়ে বিরাট কোহলির দল। ফলে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের খেলার দৌড় থেকে ছিটকে গেল ইংল্যান্ড।

দ্বিতীয় দিন উইকেটের পতন হয়েছে ১৭টি। ভারতের ৭টি এবং ইংল্যান্ডের ১০টি। ৩ উইকেটে ৯৯ রান নিয়ে খেলতে নামা ভারত অল আউট হয় ১৪৫ রানে। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নামা ইংল্যান্ড অল আউট হয় ৮১ রানে। ৪৯ রানের লক্ষ্যে কোন উইকেট না হারিয়েই পৌঁছে যায় ভারত। রোহিত অপরাজিত থাকেন ২৫ এবং গিল করেন ১৫। টেস্ট ইতিহাসে এবারই প্রথম কোনো টেস্টে এতো কম বল খেলা খেলা হয়েছে। মাত্র বল হয়েছে ৮৩৫টি।

দিনের শুরু থেকেই নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামের উইকেটের আচরণ ছিল ভুতুড়ে। উইকেট ভাঙার সঙ্গে টার্ন ও বাউন্সের পাশাপাশি বল স্কিডও করছিল। যা বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগান অক্ষর প্যাটেল। দ্বিতীয় ইনিংসেও তুলে নেন ৫ উইকেট। আর তাতেই ১৯৯০ সালের পর দ্বিতীয় স্পিনার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই টেস্টে তিনবার ৫ উইকেট রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এর আগে এই মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন বাংলাদেশের মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রথম ইনিংসে অক্ষর ৬ উইকেট নিয়েছিলেন ৩৮ রানে। এই ইনিংসে নিয়েছেন ৩২ রানে ৫ উইকেট।

ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের অসহায় আত্মসমর্পণের দিন ৪ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় দ্রুততম স্পিনার হিসেবে ৪০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন রবিচন্দ্র অশ্বিন। এর আগে ৭২ টেস্টে ৪০০ নিয়েছিলেন মুত্তিয়া মুরালিধরন। অশ্বিন ৪০০ উইকেট নিয়েছেন ৭৭ টেস্টে। দিনের শুরুতে ৩ উইকেটে ৯৯ রান নিয়ে খেলতে নেমে ইংল্যান্ডের স্পিনারদের ঘূর্ণির সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ভারতের ব্যাটসম্যানরা। সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন রোহিত শর্মা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন বিরাট কোহলি। ১৭ রান আসে অশ্বিনের ব্যাট থেকে।

এদিন অবশ্য ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ৫ উইকেটের দেখা পান জো রুট। ৪০ ওভারের সময় বোলিংয়ে এসে একে একে তুলে নেন ঋষভ পান্ত, অশ্বিন, ওয়াশিংটন সুন্দর, অক্ষর এবং জসপ্রিত বুমরাহকে। ৬.২ ওভারে ৮ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই ২ উইকেট হারিয়ে বসে ইংল্যান্ড। এরপর দলীয় ১৯ রানে ফিরে যান ডম সিবলি। তিনটি উইকেটই নেন অক্ষর। জো রুট এবং বেন স্টোকস মিলে ৩১ রানের জুটি গড়লেও এই জুটিও ভাঙেন তিনি। ৫০ রানে ৪ উইকেট হারানো ইংল্যান্ডকে আরও চেপে ধরেন অশ্বিন। ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিলে ইংলিশরা অল আউট হয় ৮১ রানে। অশ্বিন নেন ৪টি। এর আগে প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড করেছিল ১১২ রান।

অর্থসূচক/এএইচআর