মিয়ানমারের বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ২

0
180

মিয়ানমারে ক্ষমতা দখল করা সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে৷ শনিবার মান্ডালে শহরে প্রতিবাদকারীদের উপর গুলি ছোঁড়ে নিরাপত্তা বাহিনী৷

মেডিকেল শিক্ষার্থীদের আয়োজিত এই বিক্ষোভে প্রায় এক হাজার মানুষ যোগ দেন৷ নয় ফেব্রুয়ারি পুলিশের গুলিতে এক তরুণীর মৃত্যু প্রতিবাদে বিক্ষোভের আয়োজন করেন তারা৷ এতে অন্তত দুইজনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছেন সেখানকার জরুরি সেবাদানে নিয়োজিত কর্মীরা৷ মান্ডালে ভিত্তিক একটি স্বেচ্ছাসেবী উদ্ধার দলের প্রধান হ্লাইং মিন ও জানিয়েছেন, একটি শিপইয়ার্ডের কাছে এই সহিংসতায় প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছেন৷

শুক্রবার গুলিতে প্রাণ হারানো মিয়া থোয়েট থোয়েট খিয়াং এর স্মরণে প্রতিবাদকারীরা ফুল ও ব্যানার হাতে মান্ডালে ও ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় নামেন৷ নিরাপত্তা বাহিনী প্রতিবাদকারীদের উপর টিয়ার গ্যাস, জল কামান ও রবার বুলেট ছোঁড়ে৷ সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ চলছে৷ এখন পর্যন্ত ৫৪৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে একটি স্বাধীন পর্যবেক্ষক দল৷

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রধান জোসেপ বোরেল সবশেষ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন৷ তিনি বিক্ষোভকারীদের উপর সহিংসতা বন্ধে মিয়ানমারের সামরিক ও সব নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানান৷ দেশটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সোমবার ইউরোপীয় ইউনিয়ন আলোচনায় বসবে বলেও এক টুইটে উল্লেখ করেন৷

মিয়ানমারের সামরিক জান্তার উপর অবরোধ আরোপে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আহ্বান জানিয়ে আসছেন সু চির সমর্থকরা৷ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ব্রিটেন এরইমধ্যে জেনারেলদের উপর অবরোধের ঘোষণা দিয়েছে৷ সূত্র: এএফপি, রয়টার্স

গত ১ ফেব্রুয়ারি অং সান সুচির গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। আন্দোলনকারীরা সেনাবাহিনীর এই অভ্যুত্থান প্রত্যাখ্যান করেছে এবং আটক নেতাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে। আন্দোলন থামাতে নানা রকম ভয়ভীতি প্রদর্শন ও অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে জান্তা সরকার। তবে এরপরেও প্রতিদিন আন্দোলন জোরদার হচ্ছে।

অর্থসূচক/এএইচআর