সঞ্চয়পত্র: ছয় মাসেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২.৩৭ শতাংশ বেশি বিক্রি

চলতি অর্থবছরের প্রথমার্ধের (জুলাই-ডিসেম্বর) মধ্যেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ৩৭ শতাংশ বেশি বিক্রি হয়েছে সঞ্চয়পত্র। ২০২০-২১ অর্থবছরে সঞ্চয়পত্র থেকে সরকারের ঋণ লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার কোটি টাকা। তবে এই অর্থবছরের প্রথমার্ধেই সঞ্চয়পত্র থেকে সরকারের ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা। জাতীয় সঞ্চয় অধিদফতরের সবশেষ তথ্যে এসব জানা গেছে।

তথ্য অনুযায়ী, গত ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথমার্ধে সঞ্চয়পত্র থেকে সরকারের ঋণ ছিল ৫ হাজার ৪৩৩ কোটি টাকা। অথাৎ চলতি অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৭৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ কম। যদিও চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি বাজেটে সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ লক্ষ্য ধরা হয় ২০ হাজার কোটি টাকা।

তথ্যে আরও দেখা যায়, অর্থবছরের এই সময়ের মধ্যে (জুলাই-ডিসেম্বর) পরিবার সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে ১০ হাজার ৪৫৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা, যা সবচেয়ে বেশি। আর তিন মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে দুই হাজার ৫০৮ কোটি ২২ লাখ টাকার। পাঁচ বছর মেয়াদি সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে এক হাজার ৯৩২ কোটি ২০ লাখ টাকার। আর পেনশনার সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে এক হাজার ৮১৪ কোটি ৯০ লাখ টাকার।

আলোচ্য সময়ের মধ্যে মোট জমা হয়েছে ৫৪ হাজার ৯৭৬ কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র। এর মধ্যে মূল পরিশোধ হয়েছে ৩৪ হাজার ৪৮৯ কোটি টাকা এবং মুনাফা পরিশোধ হয়েছে ১৬ হাজার ২৬৩ কোটি টাকা।

তথ্যে অনুযায়ী, ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে নিট সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছিল ৫ হাজার ৪৩৩ কোটি টাকার। আর চলতি অর্থবছরের একই সময়ে সঞ্চয়পত্র বিক্রির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা। এক বছরের ব্যবধানে একই সময়ে বিক্রি বেড়েছে ১৫ হাজার ৫৪ কোটি টাকা।

অর্থসূচক/এনএইচ/কেএসআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...