ক্ষমা চাইলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

0
145

কোভিড -১৯-এর বিস্তার রোধে জনগণকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল জাপান সরকার৷ তবে দেশটির ক্ষমতাসীন জোটের একাধিক সাংসদ সেই নির্দেশ মানেননি৷ তারা নাইটক্লাবে যাওয়ায় ক্ষমা চাইতে হলো দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগাকে৷

সংসদে জাপান প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনার জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত৷ আমি জনগণকে রাত ৮টার পর বাইরে না খেতে এবং জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না যাওয়ার অনুরোধ করছি৷ আইন প্রণেতাদের সবাইকেই জনগণের মনোভাব বুঝতে হবে৷

জানা গেছে, দেশটির ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রবীণ আইনপ্রণেতা মাটসুমোটো টোকিওর দুটি নাইট ক্লাবে গিয়েছিলেন৷ আরেক আইনপ্রণেতা কিয়োহিকো শুক্রবার রাতে একটি নাইটক্লাবে যাওয়ার কথা জানান৷ এ ঘটনা নিয়ে টুইটারেও অনেকে হাতাশা প্রকাশ করেছেন৷ একজন লিখেছেন, ‘জনগণ ক্ষোভে ফেটে পড়া এখন শুধু সময়ের ব্যাপার৷ আমি চাই তারা পদত্যাগ করুক৷’

আরেকজন টুইট করেছেন, ‘তারা আসলেই বোকা, তাদের কি ধারণা জনগণ তাদের কার্যকলাপ বুঝতে পারে না? যদি তা ভেবে থাকেন, তাহলে তারা জনগণের প্রতিনিধিত্ব করার অযোগ্য৷’

করোনার তীব্র সংক্রমণ ঠেকাতে এ মাসে জাপানের রাজধানী টোকিওসহ অন্যান্য অঞ্চলেও জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছিল৷ তবে দেশটির বার এবং রেস্তোরাঁগুলো রাত আটটার পর বন্ধ রাখার কথা বলা হলেও, নিয়ম অমান্যকারীদের জন্য কোনো শাস্তির বিধান রাখা হয়নি৷ সূত্র: রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর