সমালোচনার পরে জার্সিতে ‘বাংলাদেশ’

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে বিশেষ জার্সি পরে খেলবে বাংলাদেশ দল। এই জার্সির নকশার মধ্যে ফুটে উঠেছে মুক্তিযোদ্ধাদের উল্লাস এবং স্মৃতিসৌধ। তবে নতুন নতুন নকশার এই জার্সি তৈরির পর সমালোচনার মুখে পড়তে হয় বোর্ডকে। যে কারণে জার্সিতে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হয় বিসিবি।

আনুষ্ঠানিকভাবে জার্সি উন্মোচন না হলেও সংবাদ মাধ্যমের কাছে জার্সির ছবি প্রকাশ করে বিসিবি। যেখানে জার্সির মাঝে ছিল না বাংলাদেশের নাম। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর ছবি প্রকাশ পাওয়ার পর এ নিয়ে শুরু হয় নানা আলোচনা-সমালোচনা। যে কারণে জার্সিতে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হয় বোর্ড। ছবি প্রকাশের ২ঘন্টা মাঝেই নতুন জার্সির ছবি প্রকাশ করে বোর্ড। যেখানে মাঝখানে বড় অক্ষরে লেখা রয়েছে বাংলাদেশের নাম। এই একটি পরিবর্তন ছাড়া জার্সিতে আর সবই আগের মতো রয়েছে।

২০২১ সালে পালন হবে স্বাধীনতার ৫০ বছর। এছাড়া পালিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’। দুটি উপলক্ষকেই স্মরণীয় করে রাখতে তৈরি হচ্ছে বিশেষ আইকনিক জার্সি। সাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনে টাইগারদের জার্সিতে শোভা পাবে মুক্তিযোদ্ধাদের উল্লাস ও স্মৃতিসৌধ। দেশের পতাকার আবহে জার্সিতে রয়েছে লাল-সুবজ রঙ।

বাংলাদেশ দলের বিশেষ জার্সি সম্পর্কে বিসিবির পরিচালক আকরাম খান বলেছেন, ‘পুরো দেশবাসীর মত আমাদের ক্রিকেট বোর্ড এবং প্লেয়াররা এটাতে সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছি। এটা আমাদের জন্য একটি বিশেষ উপলক্ষ্য যেহেতু আমাদের স্বাধীনতার ৫০ বছর। সেটা উদযাপন করার জন্য আমরা জার্সির কথাটা মাথায় রেখেছি।’

জার্সির নকশা নিয়ে বিস্তারিত জানাতে গিয়ে এই পরিচালক বলেছেন, ‘জার্সিটা কিন্তু আমরা আমাদের জাতীয় পতাকার মত করেছি, সবুজ এবং লাল দিয়ে করা। এখানে অন্য কোন রং নেই। আমাদের পতাকায় লাল সূর্যটা যেভাবে আছে সেটা ওখানে তুলে ধরেছি। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের পর আমাদের মুক্তিযোদ্ধা ভাইয়েরা যেভাবে উল্লাস করেছে, যেভাবে স্বাধীনতার উদযাপন করেছে সেটা এবং তার সঙ্গে আমাদের যে স্মৃতিসৌধ আছে ওটাও আমরা ওখানে তুলে ধরেছি।’

আগামী ২০ জানুয়ারি বিশেষ এই জার্সি গায়ে জড়িয়েই মাঠে নামবেন তামিম-সাকিবরা। ২২ জানুয়ারি একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচ। ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রামে হবে তৃতীয় ওয়ানডে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...