বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে ৩ ব্রিটিশ আম্পায়ার

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের আসন্ন দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের জন্য তিনজন ম্যাচ অফিশিয়ালস পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি)। তার মধ্যে একজন আইসিসির এলিট প্যানেলভূক্ত ইংলিশ আম্পায়ার রিচার্ড ক্যাটেলবরো। টেস্ট সিরিজের দুই ম্যাচেই অন ফিল্ড আম্পায়ার হিসেবে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

২০০২ সালে আইসিসি টেস্ট ক্রিকেটের ক্ষেত্রে নিরপেক্ষ আম্পায়ার দ্বারা ম্যাচ পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারি এবং আন্তর্জাতিক ভ্রমণ জটিলতার কারণে সম্প্রতি সেই নিয়ম কিছুটা শিথিল করে বিশ্ব ক্রিকেটের এই নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। সেক্ষেত্রে আইসিসির পরিচালনা পর্ষদ ঘরের মাঠের সিরিজগুলোতে অস্থায়ীভাবে নিজস্ব আম্পায়ার এবং ম্যাচ রেফারির দ্বারা ম্যাচ পরিচালনার অনুমতি দেয়।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের দেশে আইসিসির এলিট প্যানেলের অন্তভূক্ত কোন আম্পায়ার নেই বা কোন উদীয়মান আম্পায়ারও নেই। তাই দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে অন-ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য এলিট প্যালেনভূক্ত একজন আম্পায়ারকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। তাদের পাশাপাশি স্থানীয় একজন আম্পায়ারের টেস্ট ম্যাচে অন ফিল্ড আম্পায়ার হিসেবে অভিষেক ঘটবে।’

ক্যাটেলবরোসহ আরো দুই জন ম্যাচ অফিশিয়ালসকে বাংলাদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। ধারণা করা হচ্ছে সেই দুজনও ব্রিটিশ। একজন হলেন হেনরি চার্লস এলিসন অন্যজন কলিন স্টুয়ার্ট টেন্যান্ট। কেননা বিসিবি মোট ৬১ জন ব্রিটিশ পাসপোর্টধারী ব্যক্তির কোয়ারেন্টাইন শিথিল করার জন্য সচিবালয়ে চিঠি পাঠিয়েছিল। যাদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ব্রিটিশ পাসপোর্ট ধারী বেশ কয়েকজন কোচ, টেলিভিশন ক্রু এবং তিনজন আইসিসির ম্যাচ অফিশিয়ালস রয়েছেন। এছাড়া ক্যারিবীয় দল ইংল্যান্ড হয়ে আসায় সরকারের কাছ থেকেও বিশেষ ছাড়পত্রের প্রয়োজন ছিল।

কারণ ইংল্যান্ডে করোনা ভাইরাসের নতুন জাতের সংক্রমণ ঘটায় দেশটি থেকে আগত যাত্রীদের ১৪ দিনের কঠোর কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার আদেশ দিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার। যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের এবং বাকি সদস্যদের মাত্র ৭ দিন হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে বিসিবি।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...