টিকা জটিলতায় হোঁচট খেয়েছে বেক্সিমকো ফার্মার শেয়ার

একদিনের ব্যবধানে বড় উত্থান-পতন ঘটেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের শেয়ারের দামে। একটি ইতিবাচক অগ্রগতির খবরে রোববার এই শেয়ারের মূল্যে বড় উল্লম্ফন ঘটেছিল। শেয়ারের মূল্য বেড়েছিল প্রায় ১০ শতাংশ। অন্য একটি নেতিবাচক খবরে আজ সোমবার (৪ জানুয়ারি) শেয়ারটি হোঁচট খেয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শেয়ারটির দাম কমেছে প্রায় ৩ শতাংশ। তবে লেনদেনের এক পর্যায়ে শেয়ারটির দাম প্রায় ৯ শতাংশ কমে গিয়েছিল।

গত শুক্রবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গঠিত একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল জরুরি পরিস্থিতি বিবেচনায় অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও এস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত করোনার টিকা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ করে। ভারতের স্থানীয় কোম্পানি সেরাম ইনস্টিটিউট ওই টিকা উৎপাদন করবে। বাংলাদেশের কোম্পানি বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস সেরামের কাছ থেকে টিকা আমদানি করার জন্য কয়েক মাস আগে প্রতিষ্ঠানটির সাথে চুক্তি করেছে। সে কারণে ভারতে আলোচিত টিকা উৎপাদন ও ব্যবহারে অগ্রগতির খবরে রোববার বাজারে বেক্সিমকো ফার্মার শেয়ারের দামে উল্লম্ফন ঘটে।

এদিকে রোববার ভারত সরকার পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সেরাম উৎপাদিত করোনার টিকা (কোভিশিল্ড) রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। সোমবার বেক্সিমকো ফার্মার শেয়ারের দামে এর তীব্র প্রভাব পড়ে।  রোববার বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সর্বোচ্চ দাম উঠেছিল ২০৯ টাকা ৫০ পয়সা। আজ শেয়ারটির ক্লোজিং মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০৩ টাকা ২০ পয়সা। দিনের এক সময়ে শেয়ারটির দাম ১৯১ টাকা ২০ পয়সা পর্যন্ত নেমে এসেছিল।

এদিন ডিএসইতে সর্বনিম্ন ১৯১ টাকা ২০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ২০৫ টাকা দরে ১ কোটি ৪ লাখ ১৬ হাজার ৬৫৭টি শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...