সততার সাথে কাজ পারলে তরুণ উদ্যোক্তারাই হবে দেশের অর্থনীতির প্রাণশক্তি

উদ্যোক্তা হওয়ার আগে শক্তিশালী ভিশন ঠিক করে সততা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। তাহলে এই তরুণ উদ্যোক্তারাই হবে বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রাণশক্তি। এজন্য সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম।

রবিবার (৩০ জুন) এফবিসিসিআই কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত তরুণ উদ্যোক্তা বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটির এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভার্চুয়ালি উপস্থিত থেকে এই মন্তব্য করেন এফবিসিসিআই সভাপতি।

এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, উদ্যোক্তা হওয়া সহজ কথা নয়। একজন তরুণ উদ্যোক্তাকে যেমন অনেক চড়াই-উতড়াই পার হয়ে যেতে হয়, তেমনি প্রতিনিয়ত মুখোমুখি হতে হয় নিত্য-নতুন চ্যালেঞ্জের। এজন্য তরুণ উদ্যোক্তাদের শক্তিশালী ভিশন ঠিক রেখে সততার সাথে কাজ করে যেতে হবে, তবেই ধরা দেবে কাঙ্ক্ষিত সফলতা।

মাহবুবুল আলম আরও বলেন, দেশের তরুণরাই হবে ২০৪১ এর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার কারিগর। এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার যুগে যেখানে হাতের কাজ দিন দিন কমতে থাকবে, যেখানে ব্যবসায়ী চিন্তায় সৃজনশীল ও সহসী হতে হবে তরুণ উদ্যোক্তাদের। বড় স্বপ্ন নিয়ে সততা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে পারলে দেশের তরুণ উদ্যোক্তারা সফল হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এফবিসিসিআইর সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী বলেন, দেশে বিরাট সংখ্যক তরুণ জনবল রয়েছে। এটাই এই দেশের বড় শক্তি। বিশ্বব্যাপী ব্যবসা বাণিজ্য প্রতিনিয়ত রূপান্তরিত হচ্ছে। দেশের তরুণ প্রজন্মকে এক্ষেত্রে অবদান রাখতে হবে।

স্ট্যান্ডিং কমিটির ডিরেক্টর ইন-চার্জ মো. কাওসার আহমেদ বলেন, তরুণ প্রজন্ম নিজস্ব পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে প্রতিষ্ঠিত হতে চায়। কিন্তু বিভিন্ন সংস্থা থেকে লাইসেন্স প্রাপ্তির জটিলতার কারণে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয় তাদের। সার্টিফিকেট সহজিকরণ ও প্রয়োজনীয় অর্থায়ন পেলে তরুণ উদ্যোক্তারা দেশে বড় অবদান রাখতে পারবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা উদ্যোক্তা তৈরিতে জেলাভিত্তিক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্য বা সেবা প্রদর্শনীর জন্য জায়গার ব্যবস্থা করা, একই ছাতার নিচে সকল লাইসেন্স প্রাপ্তি নিশ্চিতের উপর জোর দেন তারা।

 

অর্থসূচক/ এইচএআই

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.