বিদেশি প্রতিষ্ঠানের পরিচালনায় পতেঙ্গা কন্টেইনার টার্মিনালের কার্যক্রম শুরু

রেড সি গেটওয়ে টার্মিনাল (আরএসজিটি) বাংলাদেশের পরিচালনায় চট্টগ্রাম বন্দরের নতুন পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল (পিসিটি) আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে। দেশে এই প্রথম কোনো বিদেশি প্রতিষ্ঠানকে বন্দরের টার্মিনাল পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হলো।

গতকাল সোমবার (১০ জুন) পিসিটির চার জেটির একটিতে কনটেইনার জাহাজ ‘মায়ের্স্ক দাভাও’ নোঙরের মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু হয়।

আরএসজিটি বাংলাদেশ হচ্ছে সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় বন্দর জেদ্দার টার্মিনাল পরিষেবা পরিচালনকারী প্রতিষ্ঠান রেড সি গেটওয়ে টার্মিনালের সহযোগী প্রতিষ্ঠান।

প্রতিষ্ঠানটি আগামী ২২ বছর পতেঙ্গা টার্মিনালের পরিচালনার দায়িত্বে থাকবে। চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ (চবক) কাজ করবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে। চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে দেশের ৯০ শতাংশ আমদানি-রপ্তানি হয়ে থাকে।

প্রায় ৩২ একর জমির ওপর নির্মিত পতেঙ্গা টার্মিনালের তিনটি ২০০ মিটার জেটি ও একটি ২২০ মিটার ডলফিন জেটি কর্ণফুলীর মোহনার কাছে হওয়ায় অল্প সময়েই এখানে জাহাজ ভেড়ানো যাবে।

১০ থেকে ১১ মিটার ড্রাফটের তিনটি জাহাজ টার্মিনালে একসঙ্গে নোঙর করতে পারবে। এর বার্ষিক ধারণক্ষমতা পাঁচ লাখ টিইইউ (২০ ফুট ইউনিট) কন্টেনার।

প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম বিনিয়োগকারী সাসটেইনেবল ইনফ্রাস্ট্রাকচার হোল্ডিং কোম্পানির গত বছর সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছিল, যন্ত্রপাতি স্থাপনের জন্য তারা প্রায় ১৭ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রত্যাশা—চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি-রপ্তানি ক্রমাগত বাড়তে থাকায় এই টার্মিনালের মাধ্যমে বার্ষিক প্রবৃদ্ধি সাত শতাংশ বাড়ানো যাবে।

স্ক্যানার না বসানো পর্যন্ত আমদানি করা সব কনটেইনার কাস্টমস রিস্ক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় পরীক্ষা করার শর্তে গত ৪ জুন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এর কার্যক্রম শুরুর অনুমোদন দেয়।

অর্থসূচক/

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.