ইংল্যান্ডের সঙ্গে খেলতে না পারায় হতাশ স্কটল্যান্ড

বৃষ্টির কারণে ইংল্যান্ড বনাম স্কটল্যান্ডের ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়েছে। ম্যাচটিতে বেশ কয়েকবার বৃষ্টি হানা দিতে থাকায় শেষ পর্যন্ত আর খেলা চালাতে পারেননি আম্পায়াররা। ফলে এই দুই দলের পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়েছে। বৃষ্টির কারণে শুরুতেই ম্যাচ পিছিয়ে যায় ৫৫ মিনিট। টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেয় স্কটল্যান্ড।

তারপর ৬.২ ওভার হওয়ার পর আবারও নামে বৃষ্টি। ততক্ষণে স্কটল্যান্ড সংগ্রহ করে বিনা উইকেটে ৫১ রান। এরপর দুই ঘণ্টা ধরে আবারও বৃষ্টি হয়। বৃষ্টি থামলে দুই দলের জন্য দশ ওভার করে খেলা চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় আম্পায়াররা। দশ ওভারে বিনা উইকেটে ৯০ রান সংগ্রহ করে দলটি। ৩১ বলে অপরাজিত ৪১ রান করেন দলটির ওপেনার জর্জ মানজি। অপরদিকে মাইকেল জোনস ৩০ বলে অপরাজিত থাকেন ৪৫ রানে। বৃষ্টি আইনে ইংল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়িয়েছিল ১০ ওভারে ১০৯ রান। যদিও তুমুল বৃষ্টির কারণে এরপর ম্যাচটি আর মাঠে গড়ায়নি।

পুরো ম্যাচ না হওয়ায় যারপরনাই হতাশ স্কটল্যান্ড। দলটির অধিনায়ক রিচি বেরিংটন বলেন, ‘আমার মতে, নিশ্চিতভাবেই আমাদের একটি সুযোগ ছিল। আবহাওয়ার কারণে পিচের ওপর কেমন প্রভাব পড়ে সেটি দেখতে পাওয়া দারুণ হতো। কারণ যেমনটা আশা করেছিলাম, কিছুটা অসম বাউন্স ছিল। আমরা যদি বোলিং ও ফিল্ডিং ভালো করতাম, নিশ্চিতভাবেই (ইংল্যান্ডকে হারানোর) সুযোগ থাকত। পুরো ম্যাচ না হওয়ায় আমার মতে, সবাই হতাশ। অন্তত কিছু ইতিবাচক দিক আছে নেওয়ার মতো। যে দুজন মাঠে নেমেছিল, খুব ভালো খেলেছে। ক্রিজে ভালো সময় কাটিয়েছে, সামনে এটি আমাদের কাজে লাগবে। তবে এখানে পুরো ম্যাচ খেলতে না পারায় আমরা হতাশ।’

এদিকে এই ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোনো ইউরোপিয়ান দেশের বিপক্ষে এখনও জেতা হলো না ইংল্যান্ডের। এর আগে জেতেনি আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডসের পর এবার তাদের প্রতিপক্ষ ছিল স্কটল্যান্ড।

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.